দাপটের সঙ্গে টার্গেটের দিকে এগুচ্ছে দ.আফ্রিকা

পিচ রিপোর্টেই আভাস পাওয়া গিয়েছিল। উইকেটে আছে অনেক রান। মুশফিকের সেঞ্চুরিতে ২৭৮ রান করেও তাই স্বস্তিতে নেই বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ওপেনার কুইন্টেন ডি কক ও হাশিম আমলা মিলিয়ে তুলে ফেলেছেন তিন অঙ্কের স্কোর। দুজনেই করে ফেলেছেন ফিফটি। বাংলাদেশের কোন বোলারই চাপ তৈরি করতে পারেননি। তাতে টার্গেটের দিকে সহজেই এগিয়ে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

পিচ রিপোর্টেই আভাস পাওয়া গিয়েছিল। উইকেটে আছে অনেক রান। মুশফিকের সেঞ্চুরিতে ২৭৮ রান করেও তাই স্বস্তিতে নেই বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ওপেনার কুইন্টেন ডি কক ও হাশিম আমলা মিলিয়ে তুলে ফেলেছেন তিন অঙ্কের স্কোর। দুজনেই করে ফেলেছেন ফিফটি। বাংলাদেশের কোন বোলারই চাপ তৈরি করতে পারেননি। তাতে টার্গেটের দিকে সহজেই এগিয়ে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। 

 

মুশফিকের সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের ২৭৮ 

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে মুশফিকুর রহিমের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটে ২৭৮ রান করেছে বাংলাদেশ। ১১৬ বলে ১১০ রান করে অপরাজিত ছিলেন মুশফিকুর রহিম। শেষ দিকে নেমে অভিষিক্ত পেস অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন করেন ১১ বলে ১৬ রান। একসময় অবশ্য দলের সংগ্রহ তিনশ ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছিল। তবে দ্রুত রান  তুলতে গিয়ে সাব্বির রহমান ও নাসির হোসেন ফিরে গেলে ২৭৮ রানেই থামতে হয় মাশরাফির দলের।   

 

মুশফিকের সেঞ্চুরি

৬৩ রানে দুই ওপেনার আউটের পর উঠেছিলেন। শেষ পর্যন্ত টিকে মুশফিকুর রহিম তুলে নিয়েছেন পঞ্চম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। ১১৮ বলে ১০০ রান করেছেন মুশফিক, তাতে আছে ১০টি চার ও দুটি বিশাল ছক্কার মার। মুশফিকের সেঞ্চুরির ঠিক আগেই অবশ্য দলের ২৩৭ রানে আউট হয়ে যান সাব্বির রহমান। 

 

দ্রুত রান তুলতে গিয়ে আউট মাহমুদউল্লাহ 

দ্রুত রান তুলার তাড়া ছিল। তা করতে গিয়ে বল নির্বাচনটা ঠিক হলো না মাহমুদউল্লাহর। প্রিটোরিয়াসের স্লোয়ার বল তুলে দিলেন আকাশে। ১৯৫ রানে চতুর্থ উইকেট হারালো বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ করেছেন ২৬ রান। 

 

মুশফিকের ফিফটি

চার নম্বরে নেমে শুরু থেকেই আগ্রাসী মুশফিকুর রহিম তুলে নিয়েছেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ২৭তম ফিফটি। ৩২ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ তিন উইকেটে ১৬২। মুশফিক ব্যাট করছেন ৫৯ রান নিয়ে। সঙ্গে আছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। 



সাকিবের আউটে ভাঙলো জুটি 




৬৩ রানে দুই উইকেট হারানোর পর মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে বেশ ভালো এক জুটি গড়ে উঠেছিল সাকিব আল হাসানের। এই ম্যাচে ৫ হাজার রান স্পর্শ করে ওয়ানডেতে সবচেয়ে দ্রুততম পাঁচ হাজার রান ও ২০০ উইকেটের রেকর্ডও গড়েন সাকিব। তবে ২৯ রান করতেই ইমরান তাহিরের গুগলিতে কুপোকাত হয়েছেন বাংলাদেশ অলরাউন্ডার। ১২৬ রানে তৃতীয় উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। ভেঙ্গে গেছে মুশফিকের সঙ্গে তার ৬৩ রানের জুটি 

 

নড়বড়ে ইমরুলও আউট 



শুরু থেকেই নড়বড়ে ইমরুল কায়েস কিছুটা সামলে নিয়েছিলেন। তবে ইনিংস বড় করতে পারলেন না আবারও। ডোয়াইন প্রিটোরিয়াসের করা লেগ স্টাম্পের অনেক বাইরের বলে ব্যাট লাগিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন তিনি। ৬৩ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। ইমরুল করেছেন ৪৩ বলে ৩১ রান। 



ভালো শুরুর পর ফিরলেন লিটন 


 

সৌম্যের জায়গায় ওপেনিংয়ে নেমে লিটন দাস খেলছিলেন ভালোই। দক্ষিণ আফ্রিকার পেসারদের সামলে তুলে নিচ্ছিলেন একের পর এক বাউন্ডারি। তবে ২৯ বলে ২১ রান করে থামল তার ইনিংস। কাগিসো রাবাদার বলে দ্বিতীয় স্লিপে ক্যাচ দিয়েছেন লিটন। ২১ রানের ইনিংসে চার আছে চারটি। লিটনের আউটে নবম ওভারে গিয়ে ৪৩ রানে বাংলাদেশ হারালো প্রথম উইকেট।  





দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে এখনো কোন ম্যাচ জেতেনি  বাংলাদেশ। কিন্তু জিতেই চলেছে সব টস। দুই টেস্ট, প্রস্তুতি ম্যাচের পর এবার ওয়ানডেতেও টস জিতেছে বাংলাদেশ। ব্যাট করার জন্য আদর্শ পিচে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্তই নিয়েছেন। তবে বাংলাদেশের জন্য খারাপ খবর চোট পুরোপুরি না সারায় খেলছেন না তামিম ইকবাল। আর পা মচকে বাদ পড়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান।

তামিম না থাকলেও একাদশ জায়গা পাননি সৌম্য সরকার। খারাপ ফর্মের কারণে বাদ দেওয়া হয়েছে তাকে। ইমরুল কায়েসের সঙ্গে তাই ওপেনিং করবেন লিটন দাস। 

মোস্তাফিজ না থাকায় অভিষেক হচ্ছে পেস অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের। 

টস জিতে ব্যাটিং নেওয়া প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেন, 'উইকেট দেখে মনে হচ্ছে এখানে প্রচুর রান আছে। আমরা চাইব যত বড় সম্ভব সংগ্রহ দাঁড় করিয়ে ওদের চ্যালেঞ্জ দিতে।' 

বাংলাদেশ একাদশ: ইমরুল কায়েস, লিটন দাস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, মাশরাফি মর্তুজা, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ। 

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ: হাশিম আমলা, কুইন্টেন ডি কক (উইকেটকিপার), ফাফ ডু প্লেসি (অধিনায়ক), জেপি ডুমিনি, এবিডি ভিলিয়ার্স, ডেভিড মিলার, ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস, অন্দেলো ফেলেকাও, কাগিসো রাবাদা, ইমরান তাহির। 

Comments

The Daily Star  | English

PM visits areas devastated by Cyclone Remal

Prime Minister Sheikh Hasina today visited the most affected areas in the country's south by Cyclone Remal

2h ago