ইডেনের ঘটনায় ছাত্ররাজনীতির কলুষিত নগ্ন রূপটি উন্মোচিত হলো: মহিলা পরিষদ

সম্প্রতি ইডেন মহিলা কলেজের ছাত্রলীগের নেত্রীদের বিরুদ্ধে ‘নারী শিক্ষার্থীদের অনৈতিক কাজে বাধ্য করা’র অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। 
ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি ইডেন মহিলা কলেজের ছাত্রলীগের নেত্রীদের বিরুদ্ধে 'নারী শিক্ষার্থীদের অনৈতিক কাজে বাধ্য করা'র অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। 

এসব ঘটনায় 'ছাত্র রাজনীতির কলুষিত নগ্ন রূপটি উন্মোচিত হয়েছে' বলে মন্তব্য করেছে সংগঠনটি।

শনিবার মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম ও সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এসব কথা জানায় সংগঠনটি।  

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি যে, সম্প্রতি ইডেন মহিলা কলেজের ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ সাংঘর্ষিক অবস্থানের কারণে ছাত্ররাজনীতির কলুষিত নগ্ন রূপটি সবার সামনে উন্মোচিত হলো। এই ঘটনায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ  প্রকাশ করছে।' 

গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রতিবেদনে বরাতে সংগঠনটি জানায়, 'ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্র সংগঠনের ক্ষমতার ব্যবহার এই পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো এখানেও  ছাত্র সংগঠনের আভ্যন্তরীণ কোন্দল, চাঁদাবাজি, আসন বাণিজ্য, প্রযুক্তির অপব্যবহার সাধারণ ছাত্রীদের অবস্থান সংকটময় করে তুলছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে সমাজে প্রচলিত নারীর প্রতি নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির প্রকাশ, যা একইসঙ্গে নারীর শিক্ষার সুযোগ গ্রহণের ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব তৈরির সম্ভাবনা সৃষ্টি  করে।'

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'ছাত্রলীগের দাপটের কারণে আজ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত হচ্ছে, শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন ধরনের হয়রানির শিকার হচ্ছেন, বিশেষত নারী শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তাহীনতার শিকার হচ্ছেন। সাম্প্রতিক সময়ে ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ড সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুষ্ঠু প্রশাসনিক কার্যক্রমের অন্তরায় হয়ে উঠছে। এ ধরনের  পরিস্থিতি বন্ধ করার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জরুরি পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন।'

বিবৃতিতে সংগঠনটি জানায়, 'আমরা বিস্ময় ও ক্ষোভের সাথে লক্ষ্য করছি যে, ইডেন কলেজের ছাত্রলীগের নেতাদের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত উত্থাপিত অভিযোগ ও পরিস্থিতির গুরুত্ব কলেজ কর্তৃপক্ষ, শিক্ষা মন্ত্রণালয় বা সরকারি দল বিবেচনায় নিচ্ছেন না।' 

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ এই সামগ্রিক নেতিবাচক পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে যথার্থ ব্যবস্থা নেওয়ার  জোর দাবি জানাচ্ছে। একইসঙ্গে দেশে যাতে সুস্থ ধারার ছাত্র রাজনীতির চর্চা গড়ে উঠে সেজন্য সংশ্লিষ্টদের মনোযোগ আকর্ষণ করছে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

 

Comments

The Daily Star  | English

Hefty power bill to weigh on consumers

The government has decided to increase electricity prices by Tk 0.70 a unit which according to experts will predictably make prices of essentials soar yet again ahead of Ramadan.

22m ago