পরিকল্পনা ঠিক রেখে শিরোপার লক্ষ্য পূরণ করতে চায় বাংলাদেশ

ঘরের মাঠে ইমার্জিং কাপের শিরোপা জয় থেকে মাত্র এক ধাপ দূরে আছে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য আসর শুরুর আগেই স্থির করে নিয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। প্রবল প্রভাব বিস্তার করে সেমিফাইনালে আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দেওয়ার পর দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত আরও একবার জানিয়েছেন, পরিকল্পনা ঠিক রেখে লক্ষ্য পূরণ করতে চান তারা।
bangladesh emerging
ছবি: এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল

ঘরের মাঠে ইমার্জিং কাপের শিরোপা জয় থেকে মাত্র এক ধাপ দূরে আছে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য আসর শুরুর আগেই স্থির করে নিয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। প্রবল প্রভাব বিস্তার করে সেমিফাইনালে আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দেওয়ার পর দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত আরও একবার জানিয়েছেন, পরিকল্পনা ঠিক রেখে লক্ষ্য পূরণ করতে চান তারা।

বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আফগানিস্তানকে হেসেখেলে ৭ উইকেটে হারায় বাংলাদেশ। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা আফগানদের ছুঁড়ে দেওয়া ২২৯ রানের লক্ষ্য মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে ৬১ বল হাতে রেখে পেরিয়ে যায় বাংলাদেশের উদীয়মানরা। স্বাগতিকদের জয়ের নায়ক অবশ্য উদীয়মান কেউ নন। বল হাতে ৩ উইকেট ও ব্যাট হাতে ৫৯ বলে ৬১ রান করে ম্যাচসেরা হন সৌম্য সরকার।

সাম্প্রতিক সময়ে বয়সভিত্তিক হোক কিংবা আন্তর্জাতিক পর্যায়, আফগানিস্তানের কাছে কম ভুগতে হয়নি বাংলাদেশকে। তবে এবার উদীয়মানদের ক্রিকেটে একেবারেই পাত্তা পায়নি আফগানরা। দুর্দান্ত জয়ে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করার পর শান্ত বলেছেন, ‘প্রথম থেকেই সবার ভেতরে এটাই লক্ষ্য ছিল। শিরোপার লক্ষ্য নিয়েই আমরা টুর্নামেন্ট শুরু করেছিলাম। যেহেতু আমরা খুব কাছাকাছি চলে এসেছি, ওইটা (শিরোপা) নিয়ে চিন্তা করব না। আমাদের যে পরিকল্পনা আছে, সে অনুযায়ী খেলার চেষ্টা করব। যদি প্রক্রিয়াটা ঠিক থাকে, তবে অবশ্যই আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পারব।’

দলনেতার পরিকল্পনামাফিক খেলা বিষয়ক বক্তব্যের প্রতিফলন পাওয়া গিয়েছে গোটা আসর জুড়ে। নিজেদের শক্তি আর সামর্থ্যে আস্থা রেখে আসরের শুরু থেকেই অদম্য বাংলাদেশ। গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে হংকংকে ৯ উইকেটে উড়িয়ে দেওয়ার পর শক্তিশালী ভারতকে ৬ উইকেটে হারায় তারা। শেষ ম্যাচে নেপালকে ৮ উইকেটে বিধ্বস্ত করে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নাম লেখায় শেষ চারে।

প্রথম সেমিতে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট পায় পাকিস্তান। আগামীকাল মিরপুরের একই ভেন্যুতে শিরোপার মঞ্চে তাদের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ শক্তিশালী হলেও মাঠের খেলায় নির্ভার থাকতে চান শান্তরা, ‘শেষ ম্যাচেও আমরা দেখেছি যে ওদের (পাকিস্তানের) বোলিং আক্রমণ ভালো। খুব বেশি চিন্তিত না। আমরা আমাদের মতো করে খেলার চেষ্টা করব। প্রতিপক্ষ দলের কী আছে, না আছে- এসব নিয়ে আমরা খুব বেশি চিন্তিত না।’

Comments