এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রামোস

সময়টা ভালো যাচ্ছে না রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক। দারুণ ছন্দে থাকার মাঠে ঠিকঠাকভাবে নামতে পারছেন না তিনি। একের পর এক ইনজুরিতে কাবু হয়ে দর্শক হয়েই কাটাতে হচ্ছে অনেক ম্যাচে। তার উপর আবার নতুন ভোগান্তিতে পড়েছেন রিয়াল অধিনায়ক। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন সময়ের অন্যতম সেরা এ ডিফেন্ডার।
ramos sergio
ছবি: টুইটার

সময়টা ভালো যাচ্ছে না রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক। দারুণ ছন্দে থাকার মাঠে ঠিকঠাকভাবে নামতে পারছেন না তিনি। একের পর এক ইনজুরিতে কাবু হয়ে দর্শক হয়েই কাটাতে হচ্ছে অনেক ম্যাচে। তার উপর আবার নতুন ভোগান্তিতে পড়েছেন রিয়াল অধিনায়ক। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন সময়ের অন্যতম সেরা এ ডিফেন্ডার।

ক্লাবের নিজস্ব ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে রামোসের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করে কর্তৃপক্ষ বলেছেন, 'রিয়াল মাদ্রিদ সিএফ ঘোষণা করেছে যে, আমাদের খেলোয়াড় সের্জিও রামোসের সবশেষ কোভিড -১৯ পরীক্ষায় ফলাফল পজিটিভ এসেছেন।'

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় বর্তমানে স্বেচ্ছায় আইসোলেশনে আছেন রামোস। কমপক্ষে ১০ দিন কোয়ারেন্টিন করতে হবে তাকে। এরপর পরীক্ষায় নেগেটিভ আসলে ফের মাঠে নামতে পারবেন রিয়াল অধিনায়ক।

মাংসপেশির ইনজুরি থেকে মুক্তি পেতে বর্তমানে পুনর্বাসনে ছিলেন রামোস। তাই সতীর্থদের সংস্পর্শে ছিলেন না বলেই জানিয়েছে ক্লাবটি। তবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তার পুনর্বাসনের কাজ কিছুটা তরান্বিত হতে পারে। সবমিলিয়ে মাস খানেক মাঠের বাইরে থাকতে হতে পারে এ ডিফেন্ডারকে।

আগামী ১৫ এপ্রিল লিভারপুলের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে নামছে রিয়াল। সে ম্যাচেও রামোসকে ছাড়া নামতে হবে লস ব্লাঙ্কোসদের। নিজেদের মাঠে প্রথম লেগেও মাঠে ছিলেন না রামোস। তবে সে ম্যাচে তার অভাব টের পেতে দেননি এদের মিলিতাও। ২০১৯ সালের চ্যাম্পিয়নদের তারা হারায় ৩-১ গোলের ব্যবধানে। কাজটা অনেকটাই এগিয়ে রেখেছেন তারা। অ্যানফিল্ডে প্রত্যাশিত ফলাফল এলেই মিলবে সেমি-ফাইনালে টিকেট। 

২০২১ সালেই মোট চার বার ইনজুরিতে পড়েছেন রামোস। মৌসুমের শুরু থেকে মোট ছয় বার। ফলে ম্যাচ মিস করতে হয়েছে এখন পর্যন্ত ২৭টি। সে তালিকা আরও দীর্ঘায়িত হতে যাচ্ছে নিশ্চিত। আর খেলতে পেরেছেন মাত্র ২০টি ম্যাচ। সেখানে নিজের কাজ রক্ষণ সামলানোর পাশাপাশি ৪টি গোল ও একটি এসিস্টও রয়েছে তার।

Comments

The Daily Star  | English
Rice price in Bangladesh is rising and the rate of coarse grain has crossed Tk 50 a kilogramme nearly after a year

How much do the poor pay for rice? At least Tk 50 a kg

Rice price in Bangladesh is rising and the rate of coarse grain has crossed Tk 50 a kilogramme nearly after a year

6h ago