ভারত

এবার ভারতে নতুন মহামারি ‘কালো ছত্রাক’

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সংক্রমণের মধ্যেই মিউকরমাইকোসিস বা কালো ছত্রাককে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এটিকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে এই রোগে আক্রান্তদের তথ্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে জানাতে বলা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সংক্রমণের মধ্যেই মিউকরমাইকোসিস বা কালো ছত্রাককে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এটিকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে এই রোগে আক্রান্তদের তথ্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে জানাতে বলা হয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় মিউকরমাইকোসিসকে মহামারি ঘোষণা করতে সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলোতে চিঠি পাঠিয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, ভারতের সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মিউকরমাইকোসিসে আক্রান্ত রোগী বা কারও এ ধরনের উপসর্গ দেখা দিলে এ সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য স্বাস্থ্য দফতর ও পরে ইন্টিগ্রেটেড ডিজিজ সার্ভিল্যান্স প্রজেক্ট (আইডিএসপি) নজরদারি সিস্টেমকে বাধ্যতামূলকভাবে জানাতে হবে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, এই ছত্রাকের সংক্রমণের চিকিত্সার জন্য একাধিক বিভাগের চিকিৎসা পদ্ধতির সমন্বয় প্রয়োজন। চোখের সার্জন, নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞ, জেনারেল সার্জন, নিউরোসার্জন, ডেন্টাল ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জনদের সঙ্গে অ্যান্টিফাঙ্গাল ওষুধ অ্যামফোটেরিসিন বি দিয়ে এর চিকিৎসা জরুরি।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, ‘এই ছত্রাকের সংক্রমণ কোভিড-১৯ রোগীদের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতার কারণ, এটি তাদেরকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়।’

ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যে কোভিড-১৯ রোগী, বিশেষত যাদের স্টেরয়েড থেরাপি প্রয়োজন ও ডায়াবেটিস আছে তাদের মধ্যে কালো ছত্রাকের সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে।

মহামারি আইন ১৮৯৭ এর অধীনে ভারতে কোনো রোগ উদ্বেগজনক পর্যায়ে গেলে তাকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করা যেতে পারে। আইনটি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিশেষ ক্ষমতা দেয় যা রোগের বিস্তার ঠেকাতে নিয়ন্ত্রণমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রয়োজন। আইন অনুযায়ী, সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও মেডিকেল কলেজগুলো নির্দিষ্ট রোগের চিকিৎসায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর) এর জারি করা গাইডলাইন অনুসরণ করবে।

গত বুধবার রাজস্থানে কালো ছত্রাকের সংক্রমণ মারাত্মকভাবে বেড়ে যাওয়ায় রাজ্য সরকার এটিকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে। গত ১৮ মে হরিয়ানা সরকারও এটিকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে। এখন পর্যন্ত কর্ণাটক, উত্তরাখণ্ড, তেলেঙ্গানা, মধ্য প্রদেশ, অন্ধ্র প্রদেশ, হরিয়ানা ও বিহারসহ ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে কালো ছত্রাকের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

মিউকরমাইকোসিস বা কালো ছত্রাক খুবই বিরল একটি সংক্রমণ। মাটি, গাছপালা, সার, পচতে থাকা ফল ও সবজিতে থাকা মিউকর মোল্ডের সংস্পর্শে এলে এ রোগে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। চিকিৎসকরা জানান, এই কালো ছত্রাক আক্রান্তের সাইনাস, মস্তিষ্ক ও ফুসফুসের ক্ষতি করে। অনেক ক্ষেত্রেই আক্রান্ত ব্যক্তির অঙ্গহানি এমনকি মৃত্যুও হয়।

আরও পড়ুন: 

কোভিড রোগীদের আরেক আতঙ্ক ‘কালো ছত্রাক’

Comments

The Daily Star  | English
Aerial view of geneva camp.

Mohammadpur Geneva Camp: Narcos clashing over new heroin spot

Mohammadpur Geneva Camp, where narcotics trade is rampant, has been witnessing clashes every day since the day after Eid-ul-Fitr.

12h ago