খেলা

আলী দাইয়ের অভিনন্দন বার্তায় ভীষণ গর্বিত রোনালদো

রেকর্ড হারানোর সম্ভাবনা নিয়ে কোনো দুঃখবোধ তো দাইয়ের নেই-ই, বরং তিনি নিজেকে সম্মানিত মনে করছেন। তার কাছে থেকে আবেগঘন অভিনন্দন বার্তা পেয়ে পর্তুগালের অধিনায়ক রোনালদোও ভীষণ গর্বিত বোধ করছেন।
ronaldo ali daei
ছবি: সম্পাদিত

আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড এতদিন আলী দাইয়ের একার ছিল। লম্বা সময় পর তা হাতছাড়া হতে চলেছে ইরানের কিংবদন্তি সাবেক এই তারকার। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো তার কীর্তিতে ভাগ বসিয়ে আছেন এককভাবে শীর্ষে ওঠার অপেক্ষায়।

রেকর্ড হারানোর সম্ভাবনা নিয়ে কোনো দুঃখবোধ তো দাইয়ের নেই-ই, বরং তিনি নিজেকে সম্মানিত মনে করছেন। তার কাছে থেকে আবেগঘন অভিনন্দন বার্তা পেয়ে পর্তুগালের অধিনায়ক রোনালদোও ভীষণ গর্বিত বোধ করছেন।

বুধবার রাতে ২০২০ ইউরোর ‘এফ’ গ্রুপের ম্যাচে ফ্রান্সের বিপক্ষে জোড়া গোল করে দাইয়ের পাশে বসেন রোনালদো। হাঙ্গেরির বুদাপেস্টের ফেরেঙ্ক পুসকাস অ্যারেনায় তার দুটি গোলই আসে পেনাল্টি থেকে। ৩৬ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডের নৈপুণ্যে ফরাসিদের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করে ইউরোর শিরোপাধারী পর্তুগিজরা পায় নকআউট পর্বের টিকিট।

২০০৬ সালে আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরে যাওয়া দাইয়ের গোল ১৮৯ ম্যাচে ১০৯টি। ২০০৩ সালে জাতীয় দলে অভিষেক হওয়া রোনালদোর সমানসংখ্যক গোল করতে লেগেছে ১৭৮ ম্যাচ। আর মাত্র একবার লক্ষ্যভেদ করলেই দাইকে টপকে তিনি পৌঁছে যাবেন চূড়ায়।

দাই আগেও বলেছিলেন, রোনালদোর কাছে রেকর্ড হারানো হবে সম্মানের ব্যাপার। রোনালদো তাকে স্পর্শ করার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে শুভেচ্ছা বার্তায় সেই কথারই পুনরাবৃত্তি করেছেন তিনি, ‘ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে অভিনন্দন, যিনি ছেলেদের আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড ভাঙা থেকে এক গোল দূরে আছেন। আমি সম্মানিত, কারণ, এই অসাধারণ অর্জনটি ফুটবলের একজন দুর্দান্ত চ্যাম্পিয়ন ও দয়ালু মানবতাবাদী রোনালদোর দখলে যাবে, যিনি বিশ্বজুড়ে মানুষকে অনুপ্রাণিত ও প্রভাবিত করেন।’

প্রতিক্রিয়ায় পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদো ইন্সটাগ্রামেই লিখেছেন, ‘সত্যিকারের চ্যাম্পিয়নরা আজীবন চ্যাম্পিয়নই থাকে। আপনার মতো অনুসরণীয় একজনের কাছ থেকে এমন বার্তা পেয়ে আমি ভীষণ গর্বিত। আলী দাই, আপনাকে ধন্যবাদ।’

বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রথম গোলটির মাধ্যমে আরও একটি নতুন কীর্তি গড়েন রোনালদো। ইউরোপের প্রথম ফুটবলার হিসেবে মেজর টুর্নামেন্টে (বিশ্বকাপ ও ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ মিলিয়ে) অন্তত ২০ গোল করেন তিনি। যা পরে বেড়ে হয়েছে ২১টি।

ইউরোর চলতি আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায়ও সবার উপরে অবস্থান করছেন রোনালদো। তার নামের পাশে গোল পাঁচটি। ইউরোর ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডও তার দখলে (১৪টি)।

Comments