বাংলাদেশ

নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজের ৩ দিন পর শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

সাব্বিরের গ্রামের বাড়ি মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার চরহোগলা গ্রামে। ছোটবেলা থেকেই ঢাকার হাজারীবাগ এলাকায় থাকতেন তিনি।

বরিশাল জেলার হিজলায় মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

হিজলা নৌ-পুলিশ জানায়, মৃত ওই শিক্ষার্থীর নাম মো. সাব্বির হোসেন (১৯)। তিনি ঢাকার হাজারীবাগ এলাকার বাসিন্দা মো. মাহতাব হোসেনের ছেলে। সাব্বির ঢাকার মোহাম্মদ বায়তুল আমান মাদরাসার শিক্ষার্থী ছিলেন।

হিজলা নৌ-পুলিশের পরিদর্শক তারিকুল ইসলাম জানান, হিজলার বড়জালিয়া গ্রামে খালার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন সাব্বির। ১৪ ফেব্রুয়ারি দুপুর দেড়টার দিকে সাব্বির তার মামা নাছিরউদ্দিনের সঙ্গে মেঘনা নদীতে গোসল করতে যান। সাঁতার না জানার কারণে এক পর্যায়ে নদীতে ডুবে যান সাব্বির।

নৌ-পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. বশির জানান, নদীর ইয়ামিন মুন্সীর ইটভাটা এলাকায় নেমেছিলেন সাব্বির। ঘটনাস্থলের অদূরে শনিবার সকালে তার মরদেহ ভেসে ওঠে। মরদেহটি উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন সম্পন্ন করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সাব্বিরের খালু আবুল কালাম জানান, সাব্বিরের গ্রামের বাড়ি মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার চরহোগলা গ্রামে। ছোটবেলা থেকেই ঢাকার হাজারীবাগ এলাকায় থাকতেন তিনি। তার বাবা একজন রিকশাচালক। হাফেজ হওয়ার পর পড়াশুনার পাশাপাশি একই মাদ্রাসায় শিক্ষকতাও করতেন সাব্বির।

Comments