নিজেদের খামতি নয় বরং মুশফিক-মুমিনুলকেই বাহবা দিলেন জার্ভিস

দিনের শুরুটা এরচেয়ে ভালো করার প্রত্যাশা হয়ত করেননি কাইল জার্ভিসরা। ২৬ রানের ভেতর বাংলাদেশের তিন উইকেট উপড়ে দিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। প্রথম সেশনটা জিম্বাবুয়ের পেসাররাই দেখিয়েছেন দাপট। দারুণ বোলিংয়ে কাঁপিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের টপ অর্ডার। অথচ দিনশেষে চওড়া হাসি থাকেনি তাদের। তবে সেজন্য নিজেদের খামতি নয় বরং কৃতিত্ব দিলেন বাংলাদেশের দুই সেঞ্চুরিয়ানকে।
Kyle Jarvis
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

দিনের শুরুটা এরচেয়ে ভালো করার প্রত্যাশা হয়ত করেননি কাইল জার্ভিসরা। ২৬ রানের ভেতর বাংলাদেশের তিন উইকেট উপড়ে দিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। প্রথম সেশনটা জিম্বাবুয়ের পেসাররাই দেখিয়েছেন দাপট। দারুণ বোলিংয়ে কাঁপিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের টপ অর্ডার। অথচ দিনশেষে চওড়া হাসি থাকেনি তাদের। তবে সেজন্য নিজেদের খামতি নয় বরং কৃতিত্ব দিলেন বাংলাদেশের দুই সেঞ্চুরিয়ানকে।

সকালের সেশনে একটানা নয় ওভার বল করেছেন জার্ভিস। পেয়েছেন বাউন্স, মুভমেন্ট। বাংলাদেশের সর্বনাশটাও করেছেন তিনিই। দুই ওপেনার উপড়ে দেওয়ার পরও বেশ কিছুক্ষণ নাজেহাল করেছেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের।

এই বোলিং সামলেও বুক চিতিয়ে দাঁড়িয়ে যান দুজন। ২৬ রানে তিন উইকেট পড়ার পর জুটিতে যোগ করেন আরও ২৬৬ রান। মুমিনুল-মুশফিক দুজনেই করেন সেঞ্চুরি। এমন দিনের পর উইকেট বা নিজেদের ঘাটতির চেয়ে প্রতিপক্ষকেই বাহবা দিলেন জার্ভিস, ‘আমার মনে হয় সকালে বেশ আর্দ্রতা ছিল। সে কারণে সকালে পেস বোলিংয়ের জন্য ভাল আচরণ করেছে। মুমিনুল আর মুশফিকুরকে কৃতিত্ব দিতে হবে। সেখানে অনেক কঠিন সময়ের মধ্যে সংগ্রাম করেছে এবং দারুণ যোগ্যতার সঙ্গেই ব্যাট করেছে। খুব সহজেই দ্রুত পাঁচ-ছয় উইকেট যেতে পারতো, তাই তাদের কৃতিত্ব আছে।’

দিনের প্রথম আর শেষভাগে উইকেট খুইয়েছে বাংলাদেশের। মাঝের সময়টা পুরোই বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের। গলদটা কোথায় হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে চান জার্ভিসরা, ‘আমরা প্রথম ঘন্টায় বিজয়ী ছিলাম, এরপর দিনের বেশিরভাগ সময়ই এগিয়ে ছিল শুধুমাত্র প্রথম এবং শেষ একটা ঘণ্টা ছাড়া। আমাদের এটা অবশ্যই খতিয়ে দেখতে হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Lucky’s sources of income, wealth don’t add up

Laila Kaniz Lucky is the upazila parishad chairman from Raypura upazila of Narshingdi and a retired teacher of a government college.

1h ago