সাত খুন মামলায় ২৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

নারায়ণগঞ্জের চাঞ্চল্যকর সাত খুন মামলায় ২৬ আসামীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্তদের মধ্যে প্রধান আসামী নূর হোসেন ও র‍্যাব-১১ এর সাবেক অধিনায়ক তারেক সাঈদসহ বাহিনীটির সাবেক তিন কর্মকর্তা রয়েছেন।
রায় উপলক্ষে সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জ আদালতের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। ছবি: শাহীন মোল্লা

নারায়ণগঞ্জে চাঞ্চল্যকর সাত খুন মামলায় ২৬ আসামীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে প্রধান আসামী নূর হোসেন ও র‍্যাব-১১ এর সাবেক অধিনায়ক তারেক সাঈদসহ বাহিনীটির সাবেক তিন কর্মকর্তা রয়েছেন।

আজ সকালে মোট ৩৫ জনের বিরুদ্ধে সাজা ঘোষণা করে রায় দেন নারায়ণগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেন। সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে নয় জনকে সাত থেকে ১৭ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন নিহত প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামের স্ত্রী ও মামলার বাদী সেলিনা ইসলাম। দ্রুত রায় কার্যকরের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার ১০টা ০৩ মিনিটে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে রায় পড়া শুরু করেন বিচারক। এসময় অভিযুক্ত ৩৫ জনের মধ্যে ২৩ জন উপস্থিত ছিলেন। এদের মধ্যে নূর হোসেনসহ পাঁচ জনকে সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে নিয়ে আসা হয়। অপর ১৮ জনকে সকাল ৯টায় নারায়ণগঞ্জ কারাগার থেকে আদালতে নেওয়া হয়। বাকি ১২ জন পলাতক রয়েছেন।

গত বছর ৩০ নভেম্বর মামলার বিবাদীপক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে রায় ঘোষণার জন্য আজকের দিন [১৬ জানুয়ারি ২০১৭] নির্ধারণ করেন আদালত।

রায় প্রদান উপলক্ষে খুব সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জ আদালতের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, সকাল ৬টা থেকে তিন শতাধিক পুলিশ আদালত প্রাঙ্গণে মোতায়েন রয়েছেন।

২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাত জনকে অপহরণ করা হয়। অপহরণের তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদীতে তাদের লাশ পাওয়া যায়।

ঘটনার এক দিন পর নিহত নজরুল ইসলামের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বাদী হয়ে নূর হোসেনসহ ছয়জনের নাম উল্লেখ করে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেন। এই হত্যার ঘটনায় পরবর্তীতে আরও একটি মামলা করা হয়।

 

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

2h ago