“এখনো অনেক কিছু করার বাকি”

গতকাল শেষ বেলায় স্বাগতিক কিউইদের বিরুদ্ধে সাকিব আল হাসানের তিন উইকেট তুলে নেওয়ায় সফরকারীদের চেহারায় মুচকি হাসির ঝলক দেখা দিয়েছিল। কেননা, সারাদিন ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশি বোলারা ‘ঘাম’ ঝরিয়েও কোনো সুফল পাচ্ছিল না।
গতকাল ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ, ছবি বিসিবি

গতকাল শেষ বেলায় স্বাগতিক কিউইদের বিরুদ্ধে সাকিব আল হাসানের তিন উইকেট তুলে নেওয়ায় সফরকারীদের চেহারায় মুচকি হাসির ঝলক দেখা দিয়েছিল। কেননা, সারাদিন ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশি বোলারা ‘ঘাম’ ঝরিয়েও কোনো সুফল পাচ্ছিল না।

কিছু সুযোগ সৃষ্টি হয়েছিল বটে তবে সেগুলোও কাজে লাগানো যায়নি। এছাড়াও, আম্পায়ারের একটি সিদ্ধান্ত তাদের পক্ষে আসেনি। চা-বিরতির ঠিক আগেও ধারণা করা হচ্ছিল যে স্বাগতিকরা একটা বিশাল রানের লিডের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। যাই হোক, সাকিবের তিনটি উইকেট ঝুলিতে ভরার পর সফরকারীরা খেলায় ফিরে আসে।

উদ্বোধনী বোলিংয়ে গতকাল চমৎকার খেলেছিলেন পেসার তাসকিন আহমেদ। তার বিশ্বাস এই ম্যাচে টাইগারদের জিতে যাওয়ার বেশ ভালো সুযোগ রয়েছে।

“আমরা নিউজিল্যান্ডের সাতটি উইকেট নিয়েছি। এখন বাকি কাজটুকু করতে হবে। আমরা চেষ্টা করবো বাকি উইকেটগুলো তাড়াতাড়ি তুলো নিতে। আশা করি, আমাদের ব্যাটসম্যানরা দ্বিতীয় ইনিংসে একটা বড় স্কোর উপহার দিবেন।”

গতকাল খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তাসকিন বলেছিলেন যে এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ দল খেলায় জিতেছে। “যদি আমাদের সেরা খেলাটা উপহার দিতে পারি তাহলে যে কোন পরিস্থিতিতে আমরা জিততে পারবো।”

দ্বিতীয় টেস্টে পেসাররা ভালো করেছেন বলে উল্লেখ করেন তাসকিন। “বোলারদের সবাই বেশ ভালো করেছে। কেউ উইকেট নিয়েছে, কেউবা স্বাগতিকদের রান নিয়ন্ত্রণ করেছে। পরিকল্পনা মতো মাপ মেনে বল করা হয়েছে কিন্তু আরও ভালোভাবে খেলাটা শেষ করতে হবে।”

তার বিশ্বাস, খেলার মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে ইনিংসের শেষের দিকে সাকিবের বোলিং স্পেল।

Comments

The Daily Star  | English