আজ সর্বোচ্চ শনাক্ত ১৩৭৬৮, মৃত্যু ২২০

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও ২২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে দেশে ১৩ হাজার ৭৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। একদিনে এটিই এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ শনাক্ত।
প্রতীকী ছবি। সংগৃহীত

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও ২২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে দেশে ১৩ হাজার ৭৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। একদিনে এটিই এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ শনাক্ত।

এ নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত ১০ লাখ ৩৪ হাজার ৯৫৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল সর্বোচ্চ ১১ হাজার ৮৭৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

আজ ২২০ জনসহ দেশে এ পর্যন্ত ১৬ হাজার ৬৩৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

আজ সোমবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, রোববার সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় অ্যান্টিজেন ও আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে ৪৪ হাজার ৬৭টি নমুনা পরীক্ষা করে আরও ১৩ হাজার ৭৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ২৪ শতাংশ।

আজ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২২০ জনের মধ্যে ১৪২ জন পুরুষ ও ৮৭ জন নারী। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে তাদের মধ্যে একজনের বয়স ১১-২০ বছরের মধ্যে, নয় জনের বয়স ২১-৩০ বছরের মধ্যে, ১৭ জনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে, ২৬ জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে, ৪৬ জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ও ষাটোর্ধ্ব ১২১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। এরপর খুলনা বিভাগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। বরিশাল বিভাগে এ সময়ে সবচেয়ে কম চার জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়াও, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৭ জন, রাজশাহী বিভাগে ২৩ জন, রংপুর বিভাগে ১৮ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ১৩ জন ও সিলেট বিভাগে ছয় জন মারা গেছেন।

২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে সর্বোচ্চ ছয় হাজার ৪১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া, চট্টগ্রাম বিভাগে দুই হাজার ৩১১ জন, খুলনা বিভাগে এক হাজার ৬৪২ জন, রাজশাহী বিভাগে এক হাজার ৩৩৯ জন, রংপুর বিভাগে ৬১৩ জন, বরিশাল বিভাগে ৫৭৫ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৫০০ জন ও সিলেট বিভাগে ৩৭৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

একই সময়ে দেশে সুস্থ হয়েছেন সাত হাজার ২০ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন আট লাখ ৮১ হাজার ৫২১ জন।

বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন পর্যন্ত মোট পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৭৫ শতাংশ। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ১৭ শতাংশ ও মৃত্যুর হার এক দশমিক ৬১ শতাংশ।

Comments

The Daily Star  | English

Fewer but fiercer since the 90s

Though the number of cyclones in general has come down in Bangladesh over the years, the intensity of the cyclones has increased, meaning the number of super cyclones has gone up, posing a greater threat to people in coastal areas, a recent study found.

18m ago