স্বাধীনতা দিবসে ভেনিসে বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের ইফতার-আলোচনা

‘আমরা স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করেছি। বহু প্রাণ ঝরিয়েছি। ২৫ মার্চ রাতে গণহত্যার মুখে পড়েছি। আমরা জানি স্বাধীনতার জন্য কত ত্যাগ করতে হয়, কত বিসর্জন দিতে হয়। কিন্তু, ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামীদের ত্যাগ, তাদের ওপর ইসরায়েলের গণহত্যা আমাদের স্তম্ভিত করেছে।’
ভেনিসে ইফতার
মহান স্বাধীনতা দিবসে ভেনিসে বাংলাদেশ প্রেসক্লাব আলোচনা ও ইফতার। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের ৫৪তম মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ভেনিস বাংলাদেশ প্রেসক্লাব আলোচনা ও ইফতারের আয়োজন করে।

গত মঙ্গলবার স্থানীয় এক রেস্টুরেন্টে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রেসক্লাবের সভাপতি এসকে এমডি জাকির হোসেন সুমনের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রেসক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা পলাশ রহমান।

প্রবাসী সাংবাদিকরা ছাড়াও কম্যুনিটির সদস্যরাও এতে অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে পলাশ রহমান বলেন, 'আমরা স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করেছি। বহু প্রাণ ঝরিয়েছি। ২৫ মার্চ রাতে গণহত্যার মুখে পড়েছি। আমরা জানি স্বাধীনতার জন্য কত ত্যাগ করতে হয়, কত বিসর্জন দিতে হয়। কিন্তু, ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামীদের ত্যাগ, তাদের ওপর ইসরায়েলের গণহত্যা আমাদের স্তম্ভিত করেছে।'

তিনি আরও বলেন, 'রমজান মুসলমানদের জন্য পবিত্র মাস। এ মাসকে মুসলমানরা ইবাদতের মাস হিসাবে পালন করেন। কিন্তু এই পবিত্র মাসেও রেহাই পাচ্ছে না ফিলিস্তিনের মজলুম মানুষরা। ইসরায়েল তাদের ওপর গণহত্যা চালাচ্ছে। এ পর্যন্ত ৩২ হাজারের বেশি সাধারণ মানুষকে তারা হত্যা করেছে। বৃষ্টির মতো বোমা ফেলে ঘর-বাড়ি, হাসপাতাল ধ্বংস করেছে। দেড় শতাধিক ত্রাণ কর্মী ও সংবাদকর্মীকে হত্যা করেছে। তারা গাজায় ত্রাণ ঢুকতে বাধা দিচ্ছে। ক্ষুধাকে অস্ত্র বানিয়েছে, যা পৃথিবীর জঘন্যতম মানবাধিকার লঙ্ঘনের একটি।'

পলাশ রহমানের প্রশ্ন, 'আর কত মানুষ মারা গেলে, কত মানবাধিকার লঙ্ঘন হলে বিশ্ববিবেক জাগবে? আর কত শিশু-নারীর রক্ত ঝরলে আরব নেতাদের টনক নড়বে?'

তার মতে, 'পশ্চিমা নেতারা মুখে মানবাধিকারের কথা বললেও মুসলমানদের রক্ত নিয়ে হোলি খেলতে তারা পছন্দ করেন। তাদের মুখে এখন আর মানবতার কথা মানায় না। তাদের মুখোশ উন্মোচিত হয়ে গেছে। তারা এক দিকে মানবতার কথা বলেন, অন্যদিকে নিরীহ মানুষ হত্যা করতে অস্ত্র সরবরাহ করেন।'

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও মানবাধিকার বিষয়ে ইতালীয় ভাষায় প্রবন্ধ পাঠ করেন ভেনিসের সাবেক রাজনীতিক বেল্লাতো জাকমো ও বিশ্ব শান্তি কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা আবদুস সালাম।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভেনিস বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সহসভাপতি শাইখ আহমেদ, উপদেষ্টা আমিনুল হাজারী, সহসভাপতি সোহানুর রহমান উজ্জ্বল ও সোহেলা আক্তার বিপ্লবী, দপ্তর সম্পাদক শরিফুল ইসলাম টগর, প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা আকতার হোসেন বেপারী, স্থানীয় পৌর কমিশনার (বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত) আফাই আলি, ভেনিস বাংলা স্কুলের সহসভাপতি নাসির উদ্দিন পান্না, আওলাদ হোসেন অন্তু, সংগঠনের সহসভাপতি সোহেলা আক্তার বিপ্লবী, দপ্তর সম্পাদক শরিফুল ইসলাম টগর, ফাহিম হোসেন মুন্না ও আনোয়ার হোসেন।

Comments

The Daily Star  | English

Economy with deep scars limps along

Business and industrial activities resumed yesterday amid a semblance of normalcy after a spasm of violence, internet outage and a curfew left deep wounds on almost all corners of the economy.

2h ago