আকাশ ছুঁয়ে দেবের সংবাদ সম্মেলন

স্বপ্ন দেখার মতোই ঘটনা বৈকি। বিমানে বসে আছেন সাংবাদিকরা। প্রশ্ন করছেন একটার পর একটা, আর উত্তর দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। বাস্তবে বিমানে আবার সংবাদ সম্মেলন হয় নাকি এমন?
আর কিছুক্ষণ বাদেই আকাশে উড়াল দিবে বিমান। এই বিমানেই হল ‘ককপিট’ ছবির সংবাদ সম্মেলন। ছবি: টুইটার/দেব

স্বপ্ন দেখার মতোই ঘটনা বৈকি। বিমানে বসে আছেন সাংবাদিকরা। প্রশ্ন করছেন একটার পর একটা, আর উত্তর দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। বাস্তবে বিমানে আবার সংবাদ সম্মেলন হয় নাকি এমন?

হয়, নিশ্চয়ই হয়। যদি সেটা অভিনেতা, পরিচালক দীপক অধিকারী হন। এই রে.. দীপক অধিকারী আবার কে? দীপক অধিকারী আর কেউ নন, দুই বাংলার চলচ্চিত্রে এই মুহূর্তে হার্টথ্রব হিরো দেব। যার কাগজের নাম দীপক অধিকারী।

নিজের অভিনীত, পরিচালিত এবং বাবা গুরুপদ অধিকারীর প্রযোজিত “ককপিট” চলচ্চিত্রের খুঁটিনাটি নিয়ে এক্কেবারে বিমানের ভেতরেই সংবাদ সম্মেলন সেরে ফেললেন দেব।

ঘটনা ১৫ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ এই শুক্রবার দুপুরের। কলকাতা নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বিমান বন্দর থেকে অভিনেত্রী বন্ধু কোয়েল মল্লিক, রুক্মিণী, বন্ধুসম দাদা ক্রিকেটার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং অবশ্যই জনা পঞ্চাশেক মিডিয়াকর্মীকে সঙ্গে নিয়ে দুর্গাপুরের উদ্দেশে বিমানের ককপিটে চড়ে বসেন পাইলট চরিত্রে অভিনেতা দেব।

২২ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাবে ‘ককপিট’। আর তাই মাটি থেকে প্রায় চল্লিশ হাজার ফুট ওপরে ব্যতিক্রমী সংবাদ সম্মেলন।

“আমি বরাবরই নতুন কিছু, ভিন্নতর কিছু করতে ভালোবাসি, আমার বহু দিনের স্বপ্ন ছিল; এইভাবে আকাশ ছুঁয়ে সংবাদ সম্মেলন করবো, আজ আমার সেই স্বপ্ন সত্যি হল”, জানান দেব।

আরও বললেন, “আমার স্বপ্ন পূরণের মহারাজের সমর্থনেও আমি কৃতজ্ঞ।” মহারাজ, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় তখন মিষ্টি হাসি দিয়ে জানালেন, “আমিও এই আকাশ ছুঁয়ার স্বপ্নের অংশ হতে পেরে গর্বিত।”

বিমানে এক এক করে প্রায় ১২ জন টেলিভিশন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দেব, যেতে যেতে কথা চলে প্রিন্টের সাংবাদিকদের সাথেও। কলকাতা থেকে উন্ডাল বিমান বন্দর। পৌছতে সময় লাগলো ৪০ মিনিট।

বর্ধমান জেলার দুর্গাপুরের শিল্প এলাকায় উন্ডাল বিমানবন্দরটি ব্যাক্তি মালিকানাধীন বিমানবন্দর। কলকাতা-দুর্গাপুরের মধ্যে বেসরকারি বিমানের চড়ে এদিন সংবাদ সম্মেলন সেরে বলেন, শুধু ছবির প্রচারই নয়। কলকাতা-দুর্গাপুরের মধ্যে যে বিমান পরিষেবা রয়েছে সেটাও দেশ-বিদেশের মানুষকে জানাতে তাঁর এই আয়োজন।

ককপিট-এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন দেব। বিমান চালকের জীবন নিয়েই নির্মিত এই ছবি। পুজোর মুখে মুক্তি পাওয়া এই চলচ্চিত্রের সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন অরিন্দম চট্টোপাধ্যায়। দেবের বাবা গুরুপদ অধিকারী ছবির অন্যতম প্রযোজক।

গত দেড় দশক ধরে টালিগঞ্জে বাংলা সিনেমায় যে পরিবর্তন এসেছে, শুধু বাণিজ্যিক দিক থেকেই নয় ছবির প্রচার-প্রচারণার ক্ষেত্রেও বিবর্তন চোখে পড়ছে রোজ। আকাশে ভেসে ভেসে “ককপিট” ছবির সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন দৃঢ়ভাবে তারই প্রমাণ রেখে গেল।

Comments

The Daily Star  | English

Hiring begins with bribery

UN independent experts say Bangladeshi workers pay up to 8 times for migration alone due to corruption of Malaysia ministries, Bangladesh mission and syndicates

30m ago