ট্রলার বোঝাই করে আসছে ইলিশ, কমেছে দাম

সাগর থেকে ট্রলার বোঝাই করে আসছে ইলিশ। সাইজেও বড়। সরবরাহ বৃদ্ধির কারণে গত সপ্তাহের তুলনায় পাইকারি বাজারে প্রতি মণে দাম কমেছে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা।
প্রতি মণ ইলিশে দাম কমেছে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা। ছবি: স্টার

সাগর থেকে ট্রলার বোঝাই করে আসছে ইলিশ। সাইজেও বড়। সরবরাহ বৃদ্ধির কারণে গত সপ্তাহের তুলনায় পাইকারি বাজারে প্রতি মণে দাম কমেছে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা।

খুচরা বাজারেও পড়েছে এর প্রভাব। ট্রাক ভর্তি করে ইলিশ পাঠানো হচ্ছে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে। পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার বঙ্গোপসাগর তীরবর্তী মহিপুর মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে গতকাল শুক্রবার পর্যাপ্ত পরিমাণ ইলিশের সরবরাহ দেখা গেছে।

দুপুর দেড়টার দিকে মহিপুর মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের ঘাটে ভিড়ে কুতুবদিয়া এলাকার মাছ ধরা ট্রলার এফবি মায়ের দোয়া। ট্রলার থেকে ৭০ মণ মাছ তোলা হয় আড়তে। গড়ে ৩০ হাজার টাকা করে মোট ২১ লাখ টাকায় বিক্রি হয় সব মাছ।

ছবি: স্টার

ট্রলারে থাকা জেলে আবুল কাসেম বলেন, সাগরে ৪ দিন মাছ ধরেছি। সাগর উত্তাল হওয়ায় নিরাপদে আশ্রয় নিতে মহিপুরে এসেছি। ট্রলারের সব মাছ ২১ লাখ টাকায় বিক্রি করতে পেরে আমি খুব খুশি। এত কম সময়ে এত মাছ এ মৌসুমে আর পাইনি।

সাগরে জাল ফেললেই ধরা পড়ছে ইলিশ। আকারেও বেশ ভালো। দামও ভালো পাওয়া যাচ্ছে, জানালেন ঘাটে নোঙ্গর করা অপর ট্রলার এফবি আকাশ-মনির মাঝি আব্দুল আজিজ।

তিনি জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে কয়েকদিন ধরে গভীর সাগর থেকে মাছধরা ট্রলারগুলো উপকূলে ফিরছে। তাদের ধরা ইলিশে স্থানীয় বাজারগুলোতে সরবরাহ বেড়েছে। চাহিদার তুলনায় সরবরাহ বেশি থাকায় ইলিশের দাম কমেছে কেজিতে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত।

মহিপুর মৎস্য আড়তদার সমিতির সভাপতি দিদার উদ্দিন মাসুম বেপারি জানান, কয়েকদিন ধরে প্রচুর ইলিশ আসছে। সাগর উত্তাল থাকায় বিভিন্ন এলাকার ট্রলারগুলো মহিপুর বন্দরে আশ্রয় নিচ্ছে। আর ওইসব ট্রলারের মাছ এখানে বিক্রি করা হচ্ছে।

এখান থেকে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০টি মাছভর্তি ট্রাক ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হচ্ছে। স্থানীয় বাজারেও কমেছে মাছের দাম।

পটুয়াখালী নিউ মার্কেট এলাকায় ১ কেজিতে ৫টি ছোট সাইজের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ থেকে ৪০০ টাকা দরে। যা গত সপ্তাহে ছিল ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা।

মাছ ব্যবসায়ী মো. জহির বলেন, '৫০০ থেকে ৭০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায়, ৮০০ গ্রাম থেকে ১ কেজির নিচে প্রতি কেজি ইলিশ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকায় আর ১ কেজির ওপরের সাইজের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ১০০ থেকে ৩০০ টাকায়।

ইলিশ কিনতে আসা শহরের সবুজবাগ এলাকার বাসিন্দা শাহ আলম বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় ইলিশের দাম কিছুটা কমেছে। কিছু ইলিশ কিনেছি আত্মীয়-স্বজনের বাড়ি পাঠাবো।

আরেক ক্রেতা বেল্লাল হোসেন বলেন, ইলিশের দাম একটু কম থাকায় আমি ৫ কেজি ইলিশ কিনেছি। মাছগুলোও ভালো। 

পটুয়াখালী জেলা মৎস্য অফিসার আজহারুল ইসলাম বলেন, নানা ধরনের অবরোধের কারণে বড় বড় আকারের ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে। জেলেরাও ভালো দাম পাচ্ছেন। বাজারের দামও ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে।

Comments

The Daily Star  | English

Flash flood, waterlogging dampen Eid joy in Sylhet

In the last 24 hours till this morning, it rained 365mm in Sunamganj town, 285mm in Sylhet city, 252mm in Gowainghat's Jaflong, and 252mm in Laurer Garh in Tahirpur

35m ago