চনপাড়ায় আধিপত্য নিয়ে ফের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৫

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ৫ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।
গুগল ম্যাপে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রের অফিস ঘাট এলাকা

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ৫ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

তারা হলেন- আলমগীর হোসেন (২৮), হৃদয় খান (৩০), ইসমাইল (৩০), ইলিয়াছ (১৭) ও খাদিজা আক্তার (১৮)৷

আহতরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

গতকাল শুক্রবার রাত থেকে শনিবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত থেমে থেমে সংঘর্ষ চলে৷

চনপাড়ার কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, চনপাড়ায় আধিপত্য বিস্তার ও মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণে দু'টি গ্রুপ সক্রিয় রয়েছে। তাদের মধ্যে একটির নেতৃত্ব দেন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে বিজয়ী সমসের আলী এবং অপরটির নেতৃত্ব দেন পরাজিত প্রার্থী জয়নাল আবেদীন৷ তাদের দু'পক্ষের লোকজনের মধ্যে প্রায়ই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে৷

শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে দু'পক্ষের লোকজনের মহড়া ছিল চনপাড়ায়, রাত থেকে থেমে থেমে সংঘর্ষ চলছে৷

এ বিষয়ে কথা বলতে সমসের আলী ও জয়নাল আবেদীন মোবাইলে একাধিকবার কল করলেও তারা কেউ ফোন ধরেননি।

শনিবার বিকেল ৩টায় গুলিবিদ্ধ খাদিজার মামি সুমি বেগম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'রাতভর মারামারি হয়েছে৷ সকাল ১১টার দিকে আবারও সংঘর্ষ বাধে। তখন খাদিজা তার নিজ ঘরের সামনে দাঁড়িয়ে ছিল৷ এ সময় একটি গুলি তার উরুতে লাগে। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।'

জেলা পুলিশের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার ('গ' সার্কেল) আবির হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সমসের আলী ও জয়নাল আবেদীন সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়৷ খবর পেয়ে চনপাড়ায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে৷ পরিস্থিতি এখন পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে৷ জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে৷'

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'রাত সাড়ে ৩টার দিকে ৪ জন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আজ সকালে আরও একজন এসেছেন। তারা সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।'

Comments