ইটভাটায় অভিযানকালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওপর শ্রমিকের হামলা, আহত ৬

ভ্রাম্যমাণ আদালত ইটভাটা গুড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে হঠাৎ ইটভাটার শ্রমিকরা ইট নিক্ষেপ করে হামলা চালায়। এছাড়া হামলাকারীরা ভ্রাম্যমাণ আদালত টিমের একটি গাড়িও ভাঙচুর করে।
Dinajpur Map
স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলায় অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার সময় পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওপর হামলা করেছে ইটভাটার শ্রমিকরা।

এতে পুলিশসহ অন্তত ছয়জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেলে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার পূর্ব সাইতারা গ্রামে অবৈধ ইটভাটা এমএইচ ব্রিকসের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার জন্য যান ম্যাজিস্ট্রেট সুলতানা সালেহা সুমির নেতৃত্বে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সেখানে পৌঁছে ভ্রাম্যমাণ আদালত ইটভাটার বিপরীতে মালিককে কাগজপত্র দেখানোর নির্দেশ দেন। মালিকপক্ষ সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় এমএইচ ইটভাটাকে চার লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত ইটভাটা গুড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে হঠাৎ ইটভাটার শ্রমিকরা ইট নিক্ষেপ করে হামলা চালায়। এছাড়া হামলাকারীরা ভ্রাম্যমাণ আদালত টিমের একটি গাড়িও ভাঙচুর করে।

পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) একেএম শরিফুল হক বলেন, 'হামলায় এক পুলিশ সদস্যসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। হামলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের একটি গাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।'

ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট সুলতানা সালেহা সুমি বলেন, 'এইচ এম ব্রিকস চালানোর আগে ভ্রাম্যমাণ আদালত আরও তিনটি ইটভাটা পরিচালনা করেছে। পরে এমএইচ ব্রিক্স এ অভিযানের সময় শ্রমিকরা অতর্কিত হামলা চালায়।'

চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খান জানান, হামলার ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের কাজ চলছে বলেও জানান তিনি।

এর আগ, গত ২৮ ফেব্রুয়ারিও একই ধরনের একটি ঘটনা ঘটেছিল দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ ফরেস্ট রেঞ্জের বিট অফিসার মো. খায়রুল ইসলাম উপজেলায় বনাঞ্চলের অভ্যন্তরে ভূমিদস্যুদের উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নিতে গিয়ে ভূমি দস্যুদের হামলায় আহত হন।

আহত অবস্থায় তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন ২৯ ফেব্রুয়ারি, ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়।

Comments

The Daily Star  | English
heavy rainfall alert in Bangladesh

Heavy rain set to drench Bangladesh for next 5 days

The country may experience continual rainfall across the country, including Dhaka, for the next five days commencing 9:00am today, said Bangladesh Meteorological Department

1h ago