ঝড়ো সেঞ্চুরিতে বিসিবি একাদশকে জেতালেন তামিম-সৌম্য

আড়াইমাস পর মাঠে ফেরা তামিম ইকবালের সেঞ্চুরিতে বিশাল রান তাড়ায় দারুণ শুরু পেয়েছিল বিসবি একাদশ। ওয়ানডাউনে নেমে সেঞ্চুরি করেছেন সৌম্য সরকারও। মিডল অর্ডার থেকে প্রত্যাশিত রান না মিললেও এই দুজনের ব্যাটে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে প্রস্তুতি ম্যাচে হারিয়েছে বিসিবি একাদশ।
Tamim-Soumya
ফাইল ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আড়াইমাস পর মাঠে ফেরা তামিম ইকবালের সেঞ্চুরিতে বিশাল রান তাড়ায় দারুণ শুরু পেয়েছিল বিসবি একাদশ। ওয়ানডাউনে নেমে ঝড়ো সেঞ্চুরি করেছেন সৌম্য সরকারও। মিডল অর্ডার থেকে প্রত্যাশিত রান না মিললেও এই দুজনের ব্যাটের ঝাঁজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে প্রস্তুতি ম্যাচে ডি/এল মেথডে হারিয়েছে বিসিবি একাদশ। 

বৃহস্পতিবার বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস জিতে আগে ব্যাট করে ৮ উইকেটে ৩৩১ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে ৪১ ওভারে বিসিবি একাদশ ৩১৪ রান তোলার পর আলোক স্বল্পতায়  খেলা শেষ হয়ে যায়। ডি/এল মেথডের হিসাবে বিসিবি একাদশ জিতে ৫১ রানে। 

তবে এই ম্যাচে হার-জিতের চেয়েও দেখার ছিল কেমন করেন চোট থেকে ফেরা তামিম ইকবাল। অনেকদিন পর বল হাতে নেওয়ায় নজর ছিল মাশরাফি মর্তুজার উপরও। বল হাতে খুব খারাপ করেননি মাশরাফি। বড় রানের জন্য বিখ্যাত বিকেএসপির মাঠে ৮ ওভার বল করে ৩৭ রান দিয়ে নিয়েছেন মারলন স্যামুয়েলসের উইকেট। তবে দিনশেষে সব আলো কেড়ে নিয়েছেন তামিম আর সৌম্যই। 

৩৩২ রানের লক্ষ্যে ইমরুল কায়েসকে নিয়ে নেমে শুরুতেই ঝড় তুলেন তামিম। তিনি যে আড়াইমাস পর মাঠে নেমেছেন, ব্যাটিং দেখে সেটা বোঝার কোন উপায় ছিল না। উইকেটে গিয়েই খেলেছেন সাবলীলভাবে। চার-ছয়ের ফোয়ারা ছুটিয়ে রান বাড়িয়েছেন তরতরিয়ে। ৯ ওভারেই তাদের জুটিতে উঠে যায় ৮১ রান। রোস্টন চেজের বলে ২৫ বলে ২৭ করে ফেরেন ইমরুল ক্যাচ দিলে ভাঙে জুটি। 

এরপরও ওয়ানডাউনে নামা সৌম্যকে নিয়ে দাপট দেখানো শুরু তামিমের। দ্বিতীয় উইকেটে দুজন যোগ করেন আরও ১১৪ রান। ৭০ বলে সেঞ্চুরিতে পৌঁছানো তামিম ফেরেন ৭৩ বলে ১০৭ রান করে। উইকেটের চারপাশে খেলা দারুণ ১৩টি চার আর চারটি বিশাল ছক্কা ছিল তামিমের ইনিংসে। 

তামিম ফেরার পরই অবশ্য পথ হারিয়ে যেতে বসেছিল বিসিবির ইনিংস। মোহাম্মদ মিঠুন, আরিফুল হক, তৌহিদ হৃদয় আর শামিম পাটোয়ারি ফেরেন দ্রুতই। ২ উইকেটে ২০০ থেকে ২৬৫ রানেই ৬ উইকেট খুইয়ে বসে বিসিবি একাদশ। তবে অধিনায়ক মাশরাফিকে নিয়ে বাকি পথ নির্বিঘ্নে পার করেন দেন সৌম্য। 

৭৫ বলে সেঞ্চুরি করা সৌম্য ৭ চার আর ৬টি ছক্কা। পুরো ইনিংসে কেবল একটা শট ছাড়া ভুল করতে দেখা যায়নি তাকে। এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান বাংলাদেশের টপ অর্ডারের লড়াইকে জমিয়ে দিয়ে খেলেছেন তার চেনা সব শট। ২ চার আর এক ছক্কায় ১৮ বলে ২২ রান করে তাকে সঙ্গ দিয়ে ম্যাচ শেষ করেন মাশরাফি। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৫০ ওভারে ৩৩১/৮ (কাইরন পাওয়েল ৪৩, হোপ ৮১, ব্রাভো ২৪, স্যামুয়েলস ৫, হেটমায়ার ৩৩, রভম্যান পাওয়েল ০, চেইস ৬৫*, অ্যালেন ৪৮, পল ২, আমব্রিস ১০*; রুবেল ২/৫৫, মাশরাফি ১/৩৭, রানা ২/৬৫, শাহিন ০/১৮, সৌম্য ০/৭২, নাজমুল ২/৬১, শামিম ১/১৬)

বিসিবি একাদশ: ৪১ ওভারে ৩১৪/৬ (তামিম ১০৭, ইমরুল ২৭, সৌম্য ১০৩*, মিঠুন ৫, আরিফুল ২১, তৌহিদ ০, শামিম ৯, মাশরাফি ২২*; রোচ ০/৪৯, টমাস ১/৫৭, চেইস ২/৫৭, পল ০/৪২, বিশু ২/৮১, অ্যালেন ১/১৯)

ফল: ডি/এল মেথডে বিসিবি একাদশ ৫১ রানে জয়ী। 

Comments

The Daily Star  | English

Trade at centre stage between Dhaka, Doha

Looking to diversify trade and investments in a changed geopolitical atmosphere, Qatar and Bangladesh yesterday signed 10 deals, including agreements on cooperation on ports, and overseas employment and welfare.

5h ago