২০২০ টি-টোয়েন্টি এশিয়াকাপের আয়োজক পাকিস্তান, তবে…

এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) সভাপতির দায়িত্ব নেওয়ার পর দেশে ফিরে নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন প্রতিবছরই এশিয়া কাপ আয়োজনের আলোচনা চলছে। তবে মঙ্গলবার এসিসির সভা শেষে জানালেন পরবর্তী এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হবে ২০২০ সালে। এবং এর আয়োজক আয়োজক দেশ পাকিস্তান। আর গত আসর ওয়ানডে সংস্করণে হলেও আগামী আসর হবে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে।

এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) সভাপতির দায়িত্ব নেওয়ার পর দেশে ফিরে নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন প্রতিবছরই এশিয়া কাপ আয়োজনের আলোচনা চলছে। তবে মঙ্গলবার এসিসির সভা শেষে জানালেন পরবর্তী এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হবে ২০২০ সালে। এবং এর আয়োজক দেশ পাকিস্তান। আর গত আসর ওয়ানডে সংস্করণে হলেও আগামী আসর হবে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে।

আয়োজক দেশ পাকিস্তান হলেও সে দেশেই যে এশিয়াকাপ হবে, সেটা নিশ্চিত করে বলেননি পাপন। এটা এখন সম্পূর্ণই পাকিস্তানের সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি। নিরাপত্তাজনিত কারণে অনেক দিন থেকেই বিশ্বক্রিকেটে এক প্রকার নির্বাসিত হয়ে আছে পাকিস্তান। তার উপর তাদের সঙ্গে ভারতের রাজনৈতিক দ্বন্দ্বটাও চরমে। সবশেষ আসরের আয়োজক ভারত হলেও সেখানে যেতে চায়নি পাকিস্তান। যে কারণে আসরটি হয়েছিল দুবাই ও আবুধাবিতে। তাই আগামী আসরও যে পাকিস্তানে হচ্ছে তা এক প্রকার নিশ্চিতই বলা যায়।  

এদিন ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে অনুষ্ঠিত হয় এসিসির সভা। যেখানে বিসিবি ও এসিসি সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপন সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন এসিসির সহ-সভাপতি কে. এইচ. ইমরান, এসিসির সেক্রেটারি অমিতাভ চৌধুরী, সাবেক আইসিসি সভাপতি ও এসিসি বোর্ড মেম্বার এহসান মানিসহ এসিসির আরও গুরুত্বপূর্ণ সদস্যবৃন্দ।

সভা শেষে এসিসি সভাপতি বলেন, ‘আগামী এশিয়াকাপের আয়োজক দেশ হচ্ছে পাকিস্তান। এখন তারা কোথায় এটা আয়োজন করবে সেটা তাদের সিদ্ধান্ত। হতে পারে পাকিস্তানে, কিংবা এবারের মতো দুবাই অথবা মালয়েশিয়ায়। আর ২০২০ সালে যেহেতু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে সেটাকে লক্ষ্য রেখেই আগামী আসর হবে টি-টোয়েন্টিতে।’

২০২০ সালের অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তাই এ আসরে আগে, সেপ্টেম্বরে এশিয়াকাপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এসিসি। এর আগে ২০১৬ সালেও টি-টোয়েন্টি সংস্করণে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সে আসরে আয়োজক দেশ ছিল বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের হারিয়ে সেবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত।

Comments

The Daily Star  | English

Fares of long-distance train journeys set to rise from May 4

Passenger train fares are set to increase from May 4 as Bangladesh Railway has decided to stop rebating fares of passengers travelling over 100 kilometres

45m ago