অ্যাসল্ট ও আধা-স্বয়ংক্রিয় রাইফেল বিক্রি নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর জেসিন্ডা অ্যারডার্ন বলেছেন, ক্রাইস্টচার্চে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় নতুন অস্ত্র আইনের আওতায় এবার সেদেশে সামরিক ধাঁচের অ্যাসল্ট ও আধা-স্বয়ংক্রিয় রাইফেল বিক্রি নিষিদ্ধ করা হচ্ছে।
Weapons
১৯ মার্চ ২০১৯, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে একটি অস্ত্রের দোকানে আগ্নেয়াস্ত্র এবং এ ধরণের বিভিন্ন সরঞ্জাম সাজিয়ে রাখা হয়েছে। ছবি: রয়টার্স/ জর্জ সিলভা

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর জেসিন্ডা অ্যারডার্ন বলেছেন, ক্রাইস্টচার্চে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় নতুন অস্ত্র আইনের আওতায় এবার সেদেশে সামরিক ধাঁচের অ্যাসল্ট ও আধা-স্বয়ংক্রিয় রাইফেল বিক্রি নিষিদ্ধ করা হচ্ছে।

আজ (২১ মার্চ) এক ঘোষণায় তিনি জানান, আগামী ১১ এপ্রিলের মধ্যে নতুন অস্ত্র আইন কার্যকর এবং দেশজুড়ে বিক্রীত নিষিদ্ধ অস্ত্রগুলো সরকারিভাবে কিনে নেওয়ার পদ্ধতি চালু হবে বলে প্রত্যাশা করছেন তিনি।

অ্যারডার্ন বলেন, “ওই হামলার ছয়দিন পর আমরা ঘোষণা দিচ্ছি যে, নিউজিল্যান্ডে সামরিক ধাঁচের সকল অ্যাসল্ট ও আধা-স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিষিদ্ধ করা হবে।”

তিনি আরও বলেন, “হামলায় গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তি তার অস্ত্রগুলো বৈধভাবে কিনেছিলেন এবং ৩০ রাউন্ড ম্যাগাজিন ব্যবহার করে ওই অস্ত্রগুলোর ক্ষমতা বাড়িয়েছিলেন। তিনি অনলাইনের মাধ্যমে সহজেই এসব অস্ত্র কিনতে সক্ষম হন।”

“তাই নতুন অস্ত্র আইনের আওতায় নিউজিল্যান্ডে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ম্যাগাজিন ও একই ধরনের অন্যান্য ডিভাইসের বিক্রিও নিষিদ্ধ করা হবে,” বলেন অ্যারডার্ন।

উল্লেখ্য, গত ১৫ মার্চ শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে জুমার নামাজ আদায়রত মুসল্লিদের ওপর স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে হামলা চালান নটন হ্যারিসন টারান্ট নামের ২৮ বছরের এক যুবক। অল্পের জন্য ওই হামলা থেকে বেঁচে যান বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। কাছাকাছি লিনউড মসজিদে দ্বিতীয় দফায় হামলা চালানো হয়। দুই মসজিদে হামলায় ৫০ জন নিহত হন।

Comments

The Daily Star  | English

Schools, colleges to open from Sunday amid heatwave

The government today decided to reopen all schools, colleges, madrasas, and technical education institutions and asked the authorities concerned to resume regular classes and activities in those institutes from Sunday amid the ongoing heatwave

9m ago