নিয়ম ভেঙে তৈরি ইমারত ১৫ দিনে চিহ্নিত হবে: মন্ত্রী

নিয়ম ভেঙে রাজধানীতে যেসব ভবন তৈরি হয়েছে, তা ১৫ দিনের মধ্যে চিহ্নিত করা হবে। প্রয়োজনে এসব ভবন সিলগালা করে দেওয়া হবে।
গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম। ছবি সৌজন্য: প্রথম আলো

নিয়ম ভেঙে রাজধানীতে যেসব ভবন তৈরি হয়েছে, তা ১৫ দিনের মধ্যে চিহ্নিত করা হবে। প্রয়োজনে এসব ভবন সিলগালা করে দেওয়া হবে।

গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম আজ রাজধানীর গুলশানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) মার্কেটের কাঁচাবাজারে আগুন লাগার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এই কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, আগামীকাল রোববার ৩১ মার্চ থেকে ১৫ দিন রাজধানীর এসব ভবনগুলোর ত্রুটি অনুসন্ধানে অভিযান চলবে। এসব ভবনে অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা না থাকলে বা অপরিকল্পিতভাবে নির্মিত হয়ে থাকলে তা সিলগালা করে দেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, “কোনো দুর্ঘটনাই ছোট নয়। মানবসৃষ্ট দুর্ঘটনাকে নিছক দুর্ঘটনা বলব না, এটা পুরোপুরি হত্যাকাণ্ড। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর। সুতরাং যারা অনিয়ম করে, বিল্ডিং কোড না মেনে ভবন তৈরি করেছেন, তাদের কোনো ছাড় নয়।”

তিনি বলেন, “অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা না থাকা ভবনগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যে সকল ভবনে অগ্নিনির্বাপণের সকল ব্যবস্থা নেই, সেগুলো চিহ্নিত করে প্রয়োজনে সেগুলো ভেঙে ফেলা হবে। মালিক পক্ষকে ইমারত নির্মাণের সকল বিধি-বিধান বাস্তবায়ন করার পরে কার্যক্রম চালাতে দেওয়া হবে।”

ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না এ কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ, যিনিই জড়িত হন, মালিক হন, ডেভেলপার হন, এমনকি রাজউকের কর্মকর্তা-কর্মচারী হন, তাদেরকে কঠোর আইনের আওতায় আনা হবে।

তিনি বলেন, “ডিএনসিসির মার্কেটে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সহনীয় নয়। রাজধানীতে যেসব ভবন তৈরি হয়েছে তা একদিনে তৈরি হয়নি। তাই অবৈধ ভবন উচ্ছেদ করতে কিছুটা সময় লাগবে। কিন্তু নতুন ঢাকায় আমরা যেসব স্থাপনা নির্মাণের অনুমতি দিচ্ছি সেখানে রাজউক এর পরিকল্পনার বাইরে চুল পরিমাণ যাওয়ার সুযোগ নেই। একেবারে পরিকল্পিত নগরী গড়ে তোলা হচ্ছে।”

Comments

The Daily Star  | English

JS passes Speedy Trial Bill amid protest of opposition

With the passing of the bill, the law becomes permanent; JP MPs say it may become a tool to oppress the opposition

1h ago