‘মেয়েরা যদি রাস্তায় নেমে না আসি, তাহলে দাবি কোনোদিন আদায় হবে না’

ফেনীর সোনাগাজী ফাজিল মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ‘গণভবন’ থেকে রাষ্ট্রপতির বাসভবন ‘বঙ্গভবন’ পর্যন্ত মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)।
১৩ এপ্রিল ২০১৯, নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকায় ‘গণভবন থেকে বঙ্গভবন’ পর্যন্ত মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। ছবি: স্টার/পলাশ খান

ফেনীর সোনাগাজী ফাজিল মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ‘গণভবন’ থেকে রাষ্ট্রপতির বাসভবন ‘বঙ্গভবন’ পর্যন্ত মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)।

আজ (১৩ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর আসাদ গেট থেকে মতিঝিল পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধনে দাঁড়িয়ে নারী নির্যাতন প্রতিরোধের ডাক দেন দলটির নেতা-কর্মীরা।

সেই মানববন্ধনে নিজ পরিবারের তিন প্রজন্মকে নিয়ে উপস্থিত ছিলেন পুরান ঢাকার ধুপখোলা গেন্ডারিয়ার বাসিন্দা মেহেরুন নেসা রুবি (৬০)।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, “আমাদের মেয়েদের ওপর বিভিন্ন সময় নানাভাবে নির্যাতন হচ্ছে। পাঁচ-সাতদিন আগে আগুন লাগিয়ে রাফিকে মারার ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করতে এসেছি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমরা এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করি।”

তিনি বলেন, “এখানে আমি এসেছি। আমার নাতি, মেয়ে ও ছেলের বউ এসেছে। আমরা সবাই এসেছি প্রতিবাদ জানানোর জন্য। বিশেষ করে আমার ছোট নাতিকে নিয়ে এসেছি এই জন্য যে, এতটুকু বাচ্চারাও ধর্ষণের শিকার হচ্ছে। এতটুকু বাচ্চাদেরও নিরাপত্তা নেই। আমরা আমাদের শিশুদের নিরাপত্তা চাই।”

“রাফিকে মারা হয়েছে, আমার নাতির নামও কিন্তু রাফা। এজন্য আমার মনটা আরও বেশি কাঁদে। আমার রাফা আর রাফির মধ্যে কোনো ব্যবধান দেখছি না। এই রাফাও যে ভবিষ্যতে এই ধরনের নির্যাতনের শিকার হবে না, এটি তো আমরা বিশ্বাস করতে পারিনা”, মন্তব্য করেন তিনি।

মেহেরুন নেসা রুবি বলেন, “এখন থেকে আমরা মেয়েরা যারা আছি, আমাদের ছেলে-মেয়ে, নাতি-পুতি, যে যেখানে আছে, সবাইকে সোচ্চারভাবে বলছি যে তোমরা রাস্তায় নামো। আমরা মেয়েরা যদি রাস্তায় নেমে না আসি, তাহলে আমাদের দাবি কোনোদিন আদায় হবে না।”

Comments

The Daily Star  | English

End crackdown on protesters, lift all curbs: Amnesty

Amnesty International today urged the Bangladesh government and its agencies to respect the right to protest, end violent crackdown on protesters and immediately lift all communication restrictions

12m ago