আমি কি করেছি: রাগান্বিত সমর্থকদের মেসি

প্রিয় দলের জয় দেখার জন্য বার্সেলোনা থেকে বেশ কিছু সমর্থকই উড়ে এসেছিলেন লিভারপুলে। ঘরের মাঠে থেকে তিন গোলের লিড যে আছে তাদের। কিন্তু অ্যানফিল্ডে অলরেডদের কাছে পাত্তাই পায়নি লিওনেল মেসির বার্সেলোনা। তাতে বেশ ক্ষেপে যায় সমর্থকরা। এয়ারপোর্টে দলকে দুয়ো দিতে থাকে তারা। তাতে বেশ হতাশ মেসি।
ছবি: এএফপি

প্রিয় দলের জয় দেখার জন্য বার্সেলোনা থেকে বেশ কিছু সমর্থকই উড়ে এসেছিলেন লিভারপুলে। ঘরের মাঠে থেকে তিন গোলের লিড যে আছে তাদের। কিন্তু অ্যানফিল্ডে অলরেডদের কাছে পাত্তাই পায়নি লিওনেল মেসির বার্সেলোনা। তাতে বেশ ক্ষেপে যায় সমর্থকরা। এয়ারপোর্টে দলকে দুয়ো দিতে থাকে তারা। তাতে বেশ হতাশ মেসি।

এয়ারপোর্টে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে মেসি তাই চিৎকার করে বার বার বলতে থাকেন, 'আমি কি করেছি, আমি কি করেছি।' অবশ্য তাতেও শান্ত হয়নি বার্সা সমর্থকরা। মূলত রোমা ট্র্যাজেডির পুনরাবৃত্তি হওয়ায় আক্রোশটা বেশি তাদের। গত মৌসুমেও একইভাবে বিদায় নিয়েছিল দলটি।

ন্যু ক্যাম্পে প্রথম লেগে ৩-০ গোলের ব্যবধানে জয় পায় বার্সেলোনা। তার জোড়া গোলই করেছিলেন মেসি। এছাড়াও আরও বেশ কিছু দারুণ সুযোগ তৈরি করেছিলেন। কিন্তু সুয়ারেজ-দেম্বেলেরা তা থেকে সুবিধা আদায় করে নিতে পারেনি। তার ফলটা অ্যানফিল্ডে ভালোভাবেই পেয়েছে দলটি। লিভারপুলের মাঠে পাত্তাই পায়নি তারা।

ম্যাচে মেসিকে দারুণভাবে আটকে দিয়েছেন লিভারপুল ডিফেন্ডাররা। বিশেষকরে তার পেছনে ছায়ার মতো লেগে ছিলেন ফ্যাবিনহো তাভারেস। তবে তারপরও বেশ কিছু সুযোগ সৃষ্টি করেছিলেন পাঁচ বারের ব্যলন ডি'অর জয়ী এ তারকা। কিন্তু লিভারপুল গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকার যেন চীনের প্রাচীর হয়েই ছিলেন।

শেষ পর্যন্ত ০-৪ গোলের ব্যবধানে হারে বার্সেলোনা। ম্যাচের চতুর্থ গোলটি ছিল বেশ দৃষ্টিকটু। বার্সার রক্ষণভাগের উদাসীনতার সুযোগ নিয়ে বুদ্ধিদীপ্ত শটে ওরিগিকে দিয়ে গোল আদায় করে নেন অ্যালেকজান্ডার- আর্নল্ড। তাতে প্রশ্ন উঠেছে দলটির পেশাদারিত্ব নিয়েও। এর আগে লিভারপুলের দুটি গোল প্রত্যক্ষভাবে দায় রয়েছে ডিফেন্ডার জর্দি আলবার।

ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে কোন দল প্রথম লেগে তিন গোলের লিড নিয়েও ছিটকে যায় বার্সা। যদিও গত আসরে প্রায় একই ঘটনা ঘটেছিল। তবে সেবার ম্যাচটি ছিল কোয়ার্টার ফাইনালে। ন্যু ক্যাম্পে রোমাকে ৪-১ গোলে হারিয়েছিল তারা। কিন্তু প্রতিপক্ষের মাঠে গিয়ে ০-৩ গোলে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় দলটি।

সূত্র:মুন্ডো দিপার্তিভো

Comments

The Daily Star  | English

Baily Road Fire: Rescue efforts underway, some feared trapped inside

10 hurt after jumping out of the building, 15 rescued so far

1h ago