আমিনুল বলছেন, ‘সময় এখন বাংলাদেশের’

তার অধিনায়কত্বে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের মঞ্চে খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সে বারেই বাজিমাত। ইংল্যান্ডের মাটিতে ১৯৯৯ আসরে আমিনুল ইসলাম বুলবুলের দল হারিয়েছিল স্কটল্যান্ড ও তৎকালীন প্রবল পরাক্রমশালী পাকিস্তানকে। আমিনুলের মনে সেই স্মৃতি এখনও জ্বলজ্বলে। এরপর পেরিয়ে গেছে ২০টি বছর। সেই ইংল্যান্ডেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আরেকটি বিশ্বকাপ। এবারে নিছকই অংশগ্রহণের জন্য নয়, মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ বৈশ্বিক আসরে যাচ্ছে বড় লক্ষ্য নিয়ে। উত্তরসূরিদের কাছে আমিনুলের প্রত্যাশাও মিলে গেছে একবিন্দুতে। বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান বলছেন, সময় এখন বাংলাদেশের।
Aminul Islam Bulbul
আমিনুল ইসলাম বুলবুল। ছবি: ফেসবুক

তার অধিনায়কত্বে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের মঞ্চে খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সে বারেই বাজিমাত। ইংল্যান্ডের মাটিতে ১৯৯৯ আসরে আমিনুল ইসলাম বুলবুলের দল হারিয়েছিল স্কটল্যান্ড ও তৎকালীন প্রবল পরাক্রমশালী পাকিস্তানকে। আমিনুলের মনে সেই স্মৃতি এখনও জ্বলজ্বলে। এরপর পেরিয়ে গেছে ২০টি বছর। সেই ইংল্যান্ডেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আরেকটি বিশ্বকাপ। এবারে নিছকই অংশগ্রহণের জন্য নয়, মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ বৈশ্বিক আসরে যাচ্ছে বড় লক্ষ্য নিয়ে। উত্তরসূরিদের কাছে আমিনুলের প্রত্যাশাও মিলে গেছে একবিন্দুতে। বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান বলছেন, সময় এখন বাংলাদেশের।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা, করণীয়সহ আরও নানা বিষয় নিয়ে প্রাণবন্ত আড্ডায় 'দ্য ডেইলি স্টারের' মুখোমুখি হয়েছিলেন সাবেক ব্যাটসম্যান আমিনুল। তার সাক্ষাৎকারের চুম্বক অংশ তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য।

প্রশ্ন: ইংল্যান্ডে উইকেট একদম ফ্লাট। এবার বিশ্বকাপে বাংলাদেশের জন্য ব্যাটিং কতটা গুরুত্বপূর্ণ, একজন ব্যাটসম্যানের দৃষ্টিকোণ থেকে আপনার কী মনে হয়?

আমিনুল: হ্যাঁ ইংল্যান্ডে পাক্কা ব্যাটিং উইকেট। সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচগুলোতে আমরা দেখেছি, দুদলের ইনিংস প্রতি রানের গড় ছিল প্রায় সাড়ে তিনশ। এই ধরনের উইকেটে পরিকল্পনা করে খেলাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আগে প্রতিটি দল পাঁচ ওভার করে পরিকল্পনা সাজাতো। কিন্তু এখন প্রতি ওভারেই পরিকল্পনা করতে হয়। আমি নিশ্চিত যে, বাংলাদেশও ঠিক একই কাজ করবে এবং ওভারপ্রতি পরিকল্পনা করবে।

প্রশ্ন: ১৯৯৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত দলের মানসিকতাটা কী কী পরিবর্তিত হয়েছে?

আমিনুল: প্রথম বিশ্বকাপে আমাদের চিন্তা ছিল, যদি সম্ভব হয় তবে একটি বা দুটি ম্যাচ জিতব। কিন্তু বাংলাদেশ এখন একটি অভিজ্ঞ দল। দলে এমন খেলোয়াড়রা আছেন যারা বিগত ১০-১২ বছর ধরে একসঙ্গে খেলছেন। ১৯৯৬ সালে যখন শ্রীলঙ্কা বিশ্বকাপ জিতেছিল, সেই সময়ে খুব বেশিদিন ধরে ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতা তাদের ছিল না। তবুও তারা বিশ্বকাপ জিততে পেরেছিল। আমার মনে হয়, এখন বাংলাদেশের সময় ঠিক তেমনই দারুণ কিছু করে দেখানোর।

প্রশ্ন: আগামী বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সুযোগ কতটা? তারা কি সেমিফাইনালে পৌঁছাতে পারবে?

আমিনুল: এবারের ফরম্যাটের কারণে বাংলাদেশের জন্য সেমিফাইনালে পৌঁছানোটা কঠিন হবে। তবে, দলটা অভিজ্ঞ এবং আমি মনে করি তারা কমপক্ষে সেরা পাঁচ বা ছয় দলের মধ্যে থাকবে। আমাদের ব্যাটিং খুবই শক্তিশালী কিন্তু বোলিং নিয়ে কিছুটা দুশ্চিন্তা আছে। বোলিং বিভাগে মাশরাফি ছাড়া খুব কম বোলারই আছ যারা ধারাবাহিক। কেবল সাকিব আল হাসানই আমাদের অভিজ্ঞ স্পিনার। যদিও আমাদের মেহেদী হাসান মিরাজ আছে, তবে আমার মনে হয় অন্য অভিজ্ঞ স্পিনার না নেওয়াটা একটা ভুল সিদ্ধান্ত। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়ন হওয়াটা দারুণ কিছু ছিল কিন্তু অতি-আত্মবিশ্বাসী হওয়া উচিত না।

প্রশ্ন: আসর শুরুর আগে খেলোয়াড়দের প্রতি আপনার কোনো বার্তা আছে?

আমিনুল: তাদের প্রতি আমার বার্তা হলো, 'নিজেদের ওপর বিশ্বাস রাখা'। এই চাপ নেওয়া উচিত না যে, এবারেই বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হতে হবে। তাদের সব দিক থেকেই ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। আর আমার মতে, বাংলাদেশ যদি দল হিসেবে খেলে, তা হলে তারা খুব ভালো ফল নিয়ে আসতে পারবে।

Comments

The Daily Star  | English

World Bank suggests unified exchange rate, further monetary tightening

The World Bank has recommended Bangladesh put in place a unified exchange rate and tighten monetary policy further in order to tame persistently high inflationary pressure and end the foreign exchange crisis.

6h ago