প্রথম ম্যাচের আগে হঠাৎ চোট সমস্যায় বাংলাদেশ

নেটে থ্রো ডাউনে ব্যাট করছিলেন তামিম ইকবাল। হুট করে একটা বল এসে তার বা হাতে আঘাত করার পরই তড়িঘড়ি মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যান তিনি। পিঠের চোটে বিশ্রামে ছিলেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজারও হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট থাকায় করেননি অনুশীলন।
Tamim Iqbal
চোট পেয়ে মাঠ থেকে বেরিয়ে যান তামিম ছবি: বিসিবি

নেটে থ্রো ডাউনে ব্যাট করছিলেন তামিম ইকবাল। হুট করে একটা বল এসে তার বাঁ হাতে আঘাত করার পরই তড়িঘড়ি মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যান তিনি। পিঠের চোটে বিশ্রামে ছিলেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজারও হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট থাকায় করেননি অনুশীলন।

সকালে অনুশীলনে এসেই ওয়ার্মআপ সেরে নেটে ব্যাট হাতে নেমে পড়েছিলেন তামিম। বেশ কিছুক্ষণ পেস, স্পিন সব রকমের বলই খেলেছেন। কিন্তু থ্রো ডাউনে ব্যাট করতে এক পর্যায়ে বাঁ হাতে ব্যথা পেয়ে অনুশীলন অসমাপ্ত রেখে বেরিয়ে যেতে হয় তাকে। তবে তামিমের চোটের অবস্থা কতটা গুরুতর তা টিম ম্যানেজমেন্ট এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি।

বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘সে মাত্রই নেটে চোট পেয়েছে। এখনো পর্যন্ত ওটা কতটা কি বলতে পারছি না। আমার মনে হয় অপেক্ষা করতে হবে। এখনই কথা বললে বিভ্রান্তি তৈরি হওয়ার সুযোগ থেকে যায়।’

টিম ম্যানেজমেন্ট জানিয়েছে, কোন রকম ঝুঁকি না নিতেই হাতে ব্যথা পাওয়ার পর মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে গেছেন তামিম। তবে সাইফুদ্দিনকে নিয়ে আছে বেশ দোলাচল। পিঠের চোটটা ভারতের বিপক্ষে ওয়ার্মআপ ম্যাচেও তাকে ভুগিয়েছে। আর এই কারণে আজ (৩১ মে) তাকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। যদিও দলের সঙ্গে মাঠে এসেছিলেন সাইফুদ্দিন। বোলিং না করলেও রানিং সেশন করেছেন তিনি।

ওয়ালশ জানান, সাইফুদ্দিনের অবস্থা বুঝতে আরও কিছুটা সময় নেবেন তারা, ভালো ব্যাপার হচ্ছে রোববারের আগে আমাদের কোনো খেলা নাই। কাজেই কাল (শনিবার) আমরা সাইফুদ্দিনকে আবার পর্যবেক্ষণ করতে পারব। গত খেলায় তার বেশ সমস্যা হচ্ছিল। এই কারণে তাকে বিশ্রামে রাখা হয়েছে। সে কতটা সেরে উঠল তা কাল আমরা দেখব।’

কেবল সাইফুদ্দিন নয়। অনুশীলন করেননি অধিনায়ক মাশরাফিও। দলের অনুশীলনের সময় তাকে ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন ও নির্বাচক হাবিবুল বাশারের সঙ্গে একান্তে আলাপ করতে দেখা যায়। অধিনায়ককেও পর্যবেক্ষণে রাখার কথা জানালেন ওয়ালশ, ‘আমার মনে হয় ম্যাশের কিছুটা অস্বস্তি ছিল, তাই আজ তেমন অনুশীলন করেনি। সেটাও কাল দেখব কি অবস্থা। মোস্তাফিজ ঠিক আছে, ওরও কিছু সমস্যা ছিল। কিন্তু আজ ভালোই বল করেছে।’

কোনো কারণে সাইফুদ্দিন খেলতে না পারলে মাশরাফি মর্তুজা ও মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে তৃতীয় পেসার হিসেবে একাদশে আসবেন রুবেল হোসেন। স্বস্তির খবর হলো, কয়েকদিন আগে চোট থেকে সেরে ওঠার পর এখন ফিটনেস নিয়ে বেশ ভালো অবস্থায় আছেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Science Lab turns into battlefield

100 injured so far as college students lock horn with BCL

22m ago