টেকনাফে গ্রেপ্তারের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

টেকনাফের কায়ুকখালীতে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর কথিত বন্দুকযুদ্ধে আজ (৩ জুন) ভোরে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।
gunfight
ছবি: স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

টেকনাফের কায়ুকখালীতে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর কথিত বন্দুকযুদ্ধে আজ (৩ জুন) ভোরে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

নিহত মুফিজুর রহমান (৪০) মাদক ব্যবসায়ী এবং একাধিক মামলার পলাতক আসামি ছিলেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। তিনি হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উলুবনিয়া কাটাখালী এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য গোলাম আকবরের পুত্র।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশের ভাষ্যমতে, মুফিজুর রহমান তালিকাভুক্ত ও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তাকে গ্রেপ্তার করার পর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশের একটি টিম গোপন স্থানে লুকিয়ে রাখা মাদক ও অস্ত্র উদ্ধার করতে গেলে মুফিজের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে।

আত্মরক্ষার্থে পুলিশ সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মুফিজুরকে সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসির দাবি অনুযায়ী, বন্দুকযুদ্ধে হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত এএসআই ওয়াহিদ, কনস্টেবল মনির হোসেন ও রুবেল মিয়া আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

At least 6 killed in quota protest clashes

At least six people were killed in three districts, including the capital, in clashes between Chhatra League and quota reform protesters today.

6h ago