উইন্ডিজকে ২১২ রানে গুটিয়ে দিলেন উড-আর্চার

উইকেট পেস-বান্ধব। সেই হিসাব মাথায় রেখে একাদশে পাঁচ পেসার নিয়েছে ইংল্যান্ড। মিলেও গেছে হিসাবটা। গতি তারকা মার্ক উড-জোফরা আর্চাররা মিলে অল্প রানে বেঁধে ফেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।
england cricket team
ছবি: রয়টার্স

উইকেট পেস-বান্ধব। সেই হিসাব মাথায় রেখে একাদশে পাঁচ পেসার নিয়েছে ইংল্যান্ড। মিলেও গেছে হিসাবটা। গতি তারকা মার্ক উড-জোফরা আর্চাররা মিলে অল্প রানে বেঁধে ফেলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।

শুক্রবার (১৪ জুন) সাউদাম্পটনের রোজ বোলে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৪৪.৪ ওভারে ২১২ রানে অলআউট হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইংলিশ পেসারদের বিপক্ষে শুরু থেকেই বিপাকে থাকা দলটি লড়াই করার মতো পুঁজিও জমা করতে পারেনি স্কোরবোর্ডে।

উইন্ডিজ শিবিরে প্রথম আঘাতটি করেন ক্রিস ওকস। ইনিংসের তৃতীয় ওভারের শেষ বলে দারুণ এক ইয়র্কারে এভিন লুইসকে বোল্ড করেন তিনি। এই ধাক্কা সামলে দলকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন ক্রিস গেইল। শেই হোপকে সঙ্গে নিয়ে ইংলিশ বোলারদের পাল্টা জবাব দিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে ৫৭ বলে ৫০ রানের জুটি গড়েন তিনি।

তবে দলকে পথ দেখাতে থাকা বিপজ্জনক গেইল ও হোপ ফিরে যান তিন বলের মধ্যে। লিয়াম প্লাঙ্কেটের শর্ট বলে জনি বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে গেইল করেন ৪১ বলে ৩৬ রান। রিভিউ নিয়ে হোপকে এলবিডাব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন মার্ক উড। ফলে ১৪তম ওভারে দলীয় ৫৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বেশ চাপে পড়ে উইন্ডিজ।

ইংলিশ পেসে ধুঁকতে থাকা ক্যারিবিয়ানরা এরপর নিকোলাস পুরান ও শিমরন হেটমায়ারের ব্যাটিংয়ে দেখতে পায় আশার আলো-দেখতে থাকে বড় সংগ্রহের স্বপ্ন। তবে হেটমায়ারের বিদায়ে ৯৯ বলে ৮৯ রানের এই জুটিটি ভাঙলে খেই হারায় দলটি। উইকেট হারাতে থাকে নিয়মিত বিরতিতে।

৪৮ বলে ৩৯ রান করে হেটমায়ার ফিরতি ক্যাচ দেন জো রুটকে। এরপর একই কায়দায় উইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের উইকেটও তুলে নেন এই পার্টটাইম স্পিনার।

উইকেটে গিয়ে ঝড় তোলার প্রচেষ্টা ছিল আন্দ্রে রাসেলের। আদিল রশিদের বলে ব্যক্তিগত ৩ রানে জীবন পাওয়ার পর হাত খুলে খেলতে শুরুও করেছিলেন। কিন্তু ভাগ্যদেবীর সহায়তা পেয়েও খুব বেশিদূর যেতে পারেননি তিনি। ১৬ বলে ১ চার ও ২ ছয়ে ২১ রান করে উডের বলে ডিপ মিড-উইকেটে ওকসের হাতে ক্যাচ দেন রাসেল।

একপ্রান্ত আগলে ধরে রাখা পুরান ৭৮ বলে ৬৩ রান করে জোফরা আর্চারের শিকার হলে উইন্ডিজের সব আশা শেষ হয়ে যায়। পরের বলে শেলডন কটরেলের উইকেট তুলে নিয়ে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনাও জাগিয়েছিলেন বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া এই পেসার। জন্মভূমির বিপক্ষে খেলতে নামা আর্চারের তৃতীয় শিকারে পরিণত হন কার্লোস ব্র্যাথওয়েট।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস মুড়িয়ে দেওয়ার কাজটা সারেন উড। ফলে ৬৮ রানের মধ্যে শেষ ৬ উইকেট হারায় দলটি। উড ১৮ রানে নেন ৩ উইকেট। আর্চার সমান সংখ্যাক উইকেট পান ৩০ রানে। ২ উইকেট নেন রুট।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২১২ (৪৪.৪ ওভারে) (গেইল ৩৬, লুইস ২, হোপ ১১, পুরান ৬৩, হেটমায়ার ৩৯, হোল্ডার ৯, রাসেল ২১, ব্র্যাথওয়েট ১৪, কটরেল ০, থমাস ০*, গ্যাব্রিয়েল ০; ওকস ১/১৬, আর্চার ৩/৩০, প্লাঙ্কেট ১/৩০, উড ৩/১৮, স্টোকস ০/২৫, রশিদ ০/৬১, রুট ২/২৭)।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

8h ago