উজ্জীবিত শ্রীলঙ্কার সামনে 'বিধ্বস্ত' দক্ষিণ আফ্রিকা

হারাবার কিছু নেই দক্ষিণ আফ্রিকার। বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে এর মধ্যেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে দলটির। দলের অবস্থায় প্রায় বিধ্বস্ত। কোন কিছুই ঠিক হচ্ছে না দলটি। এখন লড়াইটা কেবল সম্মানের। অন্যদিকে বিশ্বকাপের আগে বর্ণহীন শ্রীলঙ্কা হঠাৎ করেই যেন বদলে যায়। সেমি-ফাইনালের স্বপ্ন ধরে রাখতে হলে জয় চাই শ্রীলঙ্কার।
ছবি: আইসিসি

হারাবার কিছু নেই দক্ষিণ আফ্রিকার। বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে এর মধ্যেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে দলটির। দলের অবস্থায় প্রায় বিধ্বস্ত। কোন কিছুই ঠিক হচ্ছে না দলটি। এখন লড়াইটা কেবল সম্মানের। অন্যদিকে বিশ্বকাপের আগে বর্ণহীন শ্রীলঙ্কা হঠাৎ করেই যেন বদলে যায়। সেমি-ফাইনালের স্বপ্ন ধরে রাখতে হলে জয় চাই শ্রীলঙ্কার।

যদিও 'মাস্ট উইন' ম্যাচ নয়, হারলেও পরের দুই ম্যাচ জিতে সেমিতে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে দলটির। কিন্তু সেক্ষেত্রে তাকিয়ে থাকতে হবে অন্যদলের ফলাফলের উপরও। তাই এদিন জয় তুলেই প্রাথমিক কাজটা সেরে রাখতে চায় দলটি।

বিশ্বকাপের ৩৫তম ম্যাচে মাঠে নামতে যাচ্ছে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা ও দক্ষিণ আফ্রিকা। ডারহামের রিভারসাইড গ্রাউন্ডে খেলা শুরু শুক্রবার (২৮ জুন) বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে ৩টায়।

পয়েন্ট তালিকায় অবস্থান:

অন্য দলগুলো যেখানে সাত থেকে আটটি ম্যাচ খেলে ফেলেছে সেখানে ভারতের মতো ছয়টি ম্যাচ খেলেছে শ্রীলঙ্কা। এরমধ্যে দুটি ম্যাচ জিতেছে তারা। দুটি ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়। অপর দুটি হার। তাতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার সপ্তম স্থানে আছে দলটি। শেষ ৩টি ম্যাচে জয় পেলে সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত হবে দলটির।

সাত ম্যাচে পাঁচটিতে হেরে এর মধ্যেই গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিশ্চিত করে ফেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। পয়েন্ট তালিকার নয় নম্বরে থাকা দলটির সংগ্রহ মাত্র ৩ পয়েন্ট। একটি জয় ও একটি ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়ায় এ পয়েন্ট পেয়েছে দলটি।

পরিসংখ্যান:

মোট ম্যাচ: ৭৬টি, শ্রীলঙ্কা জয়ী: ৩১টি, দক্ষিণ আফ্রিকা জয়ী: ৪৩টি, টাই: ১টি, পরিত্যক্ত: ১টি।

বিশ্বকাপ পরিসংখ্যান:

মোট ম্যাচ: ৫টি, শ্রীলঙ্কা জয়ী: ৩টি, দক্ষিণ আফ্রিকা জয়ী: ২টি।

সম্ভাব্য একাদশ:

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ জয়ের পর উইনিং কম্বিনেশন নাও ভাঙতে পারে শ্রীলঙ্কা। তবে জীবন মেন্ডিসের পারফরম্যান্স নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছে দলটি। সেক্ষেত্রে একজন ব্যাটসম্যান বাড়িয়ে তার জায়গায় দেখা যেতে পারে মিলিন্দা সিরিবর্ধনে কিংবা লাহিরু থিরিমান্নে।

বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় শেষ দুই ম্যাচে কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেক্ষেত্রে কাগিসো রাবাদা কিংবা লুঙ্গি এনগিডিকে বিশ্রাম দিতে পারে দলটি। এমনকি দুইজনকেই বিশ্রাম দেওয়া সম্ভাবনাও রয়েছে। একাদশে সুযোগ পাওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়ে আছেন কুইক বেউরান হেন্ড্রিকস। এছাড়া পেসার ডুয়ানে প্রেটোরিয়াস এবং স্পিনার টাবরাইজ শামসিকে একাদশে আনতে পারে দলটি। এইডেন মার্করামের জায়গায় ফিরতে পারেন জেপি ডুমিনি।

শ্রীলঙ্কা: দিমুথ কারুনারাত্নে, কুশল পেরেরা, আভিস্কা ফের্নান্ডো, কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, থিসারা পেরেরা, জীবন মেন্ডিস/মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, ইশুরু উদানা, নুয়ান প্রদিপ ও লাসিথ মালিঙ্গা।

দক্ষিণ আফ্রিকা: হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক, ফাফ দু প্লেসি, এইডেন মার্করাম/জেপি ডুমিনি, রস্যি ভ্যান ডার ডুসেন, ডেভিড মিলার, আন্ডিল ফেলুকাওয়ো, ক্রিস মরিস, কাগিসো রাবাদা/বেউরান হেন্ড্রিকস, লুঙ্গি এনগিডি ও ইমরান তাহির।

Comments

The Daily Star  | English

Medium of education should be mother language: PM

Prime Minister Sheikh Hasina today said that the medium for education in educational institutions should be everyone's mother tongue.

2h ago