‘শিশুদের জন্য একদিন’

আট বছরের শিশু এডওয়ার্ড ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে পথ দেখিয়ে নিয়ে ঢুকলেন সংবাদ সম্মেলনে। কেতাদুরস্ত পোশাক আর ভারিক্কি চালে নিজেকে মিডিয়া মিডিয়া ম্যানেজার হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিলেন, পাশে দাঁড়ানো বিরাট কোহলি মুখে হাসি নিয়ে তার কাছেই চাইলেন বসার অনুমতি।
ছবি: রয়টার্স

আট বছরের শিশু এডওয়ার্ড ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে পথ দেখিয়ে নিয়ে ঢুকলেন সংবাদ সম্মেলনে। কেতাদুরস্ত পোশাক আর ভারিক্কি চালে নিজেকে মিডিয়া মিডিয়া ম্যানেজার হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিলেন, পাশে দাঁড়ানো বিরাট কোহলি মুখে হাসি নিয়ে তার কাছেই চাইলেন বসার অনুমতি।

‘সবাইকে স্বাগত। আমরা প্লে গ্রাউন্ড পন্ডিতস। শিশুদের জন্য তহবিল সংগ্রহ করতে কালকের ম্যাচের দায়িত্ব আমরা নিচ্ছি। আমি এডওয়ার্ড। আজ আমিই মিডিয়া ম্যানেজার। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে পরিচয় করিয়ে দিয়ে আমি রোমাঞ্চিত।’

এডওয়ার্ডের আনুষ্ঠানিক কথায় হাসির রোল উঠল। তালিও পড়ল। এডওয়ার্ডের মতই আরেক শিশু নেহার প্রশ্নে শুরু হলো সংবাদ সম্মেলন। কালকের ম্যাচ নিয়ে কোহলিরা কতটা রোমাঞ্চিত? সিরিয়াস হয়েই সেই প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। 

‘শিশুদের জন্য একদিন’ স্লোগানে, ‘ভারত-ইংল্যান্ড’ ম্যাচে তাই প্রতীকী দায়িত্বে শিশুরা। তারই অংশ হিসেবে এডওয়ার্ড আর নেহার এই ভূমিকা।

মূলত আইসিসির সঙ্গে মিলে এই উদ্যোগ নিয়েছে জাতিসংঘের শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করা সংস্থা ইউনিসেফ। সংবাদ সম্মেলন শেষে উন্মোচন হয় ভারত ও ইংল্যান্ডের বিশেষ জার্সিরও। ভারতের গেরুয়া রঙের অ্যাওয়ে জার্সির পেছনে লেখা আছে ‘শিশুদের জন্য একদিন।’ ইংল্যান্ডের আকাশি রঙের হোম জার্সির পেছনেও লেখা থাকবে এই কথাই। এই জার্সি গায়ে চাপিয়েই রোববার মাঠে নামবেন তারা। ইউনিসেফের উদ্যোগে ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচটা উৎসর্গ করা হয়েছে শিশুদেরকে। এই ম্যাচ থেকে পাওয়া অর্থ কাজে লাগানো হবে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের উন্নয়নে।

বার্মিংহামের এজবাস্টনে রোববার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নামছে ভারত। টুর্নামেন্টে সেমিফাইনালের পথে অনেকখানি এগিয়ে আছে কোহলির দল। কিন্তু ইংল্যান্ডের আছে বাঁচামরার লড়াইয়ে। এই ম্যাচ হারলে সেমির আশা অনেকখানি কমে যাবে ইয়ন মরগ্যানের দলের।

Comments