ফুলেল শ্রদ্ধায় হোলি আর্টিজান নিহতদের স্মরণ

হোলি আর্টিজান নৃশংস হামলার তৃতীয় বার্ষিকীতে আজ (১ জুলাই) হামলার শিকার ব্যক্তিদের প্রতি তাদের বন্ধু-স্বজনের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলার বাহিনীর সদস্যরাও ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।
Holey Artisan anniversary
১ জুলাই ২০১৯, রাজধানীর গুলশানে অবস্থিত হোলি আর্টিজানে হামলার তৃতীয় বার্ষিকীতে নিহতদের স্মরণে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। ছবি: প্রবীর দাশ

হোলি আর্টিজান নৃশংস হামলার তৃতীয় বার্ষিকীতে আজ (১ জুলাই) হামলার শিকার ব্যক্তিদের প্রতি তাদের বন্ধু-স্বজনের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলার বাহিনীর সদস্যরাও ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।

আজ সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থলটি জনসাধারণের জন্যে খুলে দেওয়া হলে নিহতদের স্বজন-বন্ধুরা সেখানে সমবেত হন।

এরপর, কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়নের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ এবং ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সদস্যদের একটি দল ঘটনাস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

২০১৬ সালের এই দিনে পাঁচ অস্ত্রধারী জঙ্গি রাজধানীর গুলশানে অবস্থিত হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা করে সেখানে অবস্থানরত ব্যক্তিদের জিম্মি করে এবং পরে তাদের মধ্যে ২০ জনকে নির্মমভাবে হত্যা করে।

নিহতদের মধ্যে তিনজন বাংলাদেশি, সাতজন জাপানি, নয়জন ইতালীয় এবং একজন ভারতীয়।

দীর্ঘ ১২ ঘণ্টার উদ্ধার অভিযানে দুজন পুলিশ সদস্যও নিহত হন।

হামলার পর সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গুলশান থানায় মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলায় জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) স্থানীয় শাখাকে অভিযুক্ত করা হয়।

দুই বছর তদন্তের পর ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট গত বছরের ২৩ জুলাই আটজন জঙ্গিকে অভিযুক্ত করে ঢাকার একটি আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

11h ago