রয়-বেয়ারস্টো তিন ওভার টিকে গেলেই...

জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টোর উদ্বোধনী জুটিই কি তবে ওয়ানডে ইতিহাসের সেরা? উত্তরে 'হ্যাঁ' বললে আপত্তি তোলার মানুষের অভাব হবে না! ওয়েস্ট ইন্ডিজের গর্ডন গ্রিনিজ-ডেসমন্ড হেইন্স, ভারতের গৌতম গম্ভির-বিরেন্দ্র শেবাগ কিংবা শচীন টেন্ডুলকার-সৌরভ গাঙ্গুলি অথবা অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম গিলক্রিস্ট-ম্যাথু হেইডেনের জুটিকে পেছনে রেখে তাদেরকে সেরা বলে মানাটা কঠিনই। পরিসংখ্যান অবশ্য সাক্ষ্য দিচ্ছে তাদের পক্ষে। সেসব কথা বাদ দিয়ে নজর দেওয়া যাক ফাইনালে।
roy and bairstow
ছবি: এএফপি

জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টোর উদ্বোধনী জুটিই কি তবে ওয়ানডে ইতিহাসের সেরা? উত্তরে 'হ্যাঁ' বললে আপত্তি তোলার মানুষের অভাব হবে না! ওয়েস্ট ইন্ডিজের গর্ডন গ্রিনিজ-ডেসমন্ড হেইন্স, ভারতের গৌতম গম্ভির-বিরেন্দ্র শেবাগ কিংবা শচীন টেন্ডুলকার-সৌরভ গাঙ্গুলি অথবা অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম গিলক্রিস্ট-ম্যাথু হেইডেনের জুটিকে পেছনে রেখে তাদেরকে সেরা বলে মানাটা কঠিনই। পরিসংখ্যান অবশ্য সাক্ষ্য দিচ্ছে তাদের পক্ষে। সেসব কথা বাদ দিয়ে নজর দেওয়া যাক ফাইনালে।

চতুর্থবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে জায়গা করে নেওয়া ইংল্যান্ড শিরোপা ছুঁয়ে দেখার অপেক্ষা ঘোচাতে চায়। নিজেদের মাঠে প্রস্তুত থাকা বিশাল উপলক্ষের মঞ্চটা রাঙাতে চায়। সেই পরিকল্পনায় বাধ সাধতে তৈরি নিউজিল্যান্ড। তারাও তো ফাইনাল থেকে খালি হাতে ফিরতে চায় না। তাদেরও তো শিরোপা উঁচিয়ে ধরার সৌভাগ্য হয়নি।

রবিবার (১৪ জুলাই) ফাইনালের ভেন্যু লর্ডসে সমবেত হওয়া ইংলিশ ভক্তদের প্রত্যাশা থাকবে- আরেকবার যেন ইনিংসের প্রথম তিন ওভার নির্বিঘ্নে পেরিয়ে যান রয় ও বেয়ারস্টো। কেন? তাহলে তো সেঞ্চুরি জুটি গড়ার আগ পর্যন্ত তাদেরকে থামানো যাবে না! আর এমন দুর্দান্ত শুরু পেলে ফাইনালটা নিজেদের করে নেওয়ার সম্ভাবনা বহুগুণে বেড়ে যাবে ইংল্যান্ডের আর নিউজিল্যান্ড ভুগতে শুরু করবে স্নায়ুচাপে, তা আলাদা করে বলে দিতে হয় না।

রয়-বেয়ারস্টো চলতি বিশ্বকাপে মোট ছয়বার জুটি বেঁধে ইনিংসের গোড়াপত্তন করেছেন। প্রথম দুবার তারা ব্যর্থ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে উদ্বোধনী ম্যাচে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ফিরেছিলেন বেয়ারস্টো। পরের ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় ওভারে সাজঘরের পথ ধরেছিলেন রয়। হতাশার সেখানেই শেষ। পরের চারবারই ইনিংস শুরুর প্রাথমিক পর্যায়টা দেখেশুনে পার করে থিতু হয়েছেন। এরপর রানের চাকা বিস্ময়করভাবে গতিশীল রেখেছেন। জুটিতে গড়েছেন সেঞ্চুরি। জুটির রানগুলো যথাক্রমে- ১২৮, ১৬০, ১২৩ ও ১২৪!

জুটি বেঁধে কমপক্ষে ৩০ ইনিংস উদ্বোধন করেছেন তাদের মধ্যে রয়-বেয়ারস্টোর জুটির গড়ই ইতিহাসের সেরা। তাদের ৬৯.৪৬ গড়ের অনেক পেছনে গ্রিনিজ-নেইন্স, গম্ভির-শেবাগ, শচীন-সৌরভ, গিলক্রিস্ট-হেইডেনরা। বিশ্বকাপে সেটা আরও ফুলে-ফেঁপে উঠেছে, ৯১.৩৩! ইনিংসের শুরুতে লম্বা জুটি গড়ে দলকে কেবল 'বড়' সংগ্রহের ভিত দিচ্ছেন রয়-বেয়ারস্টো বললে ভুল হবে, তারা আসলে রানের 'পাহাড়' গড়ার পথ তৈরি করে দিচ্ছেন। কারণ জুটির সময়টাতে প্রতি ওভারে প্রায় সাত ছুঁইছুঁই গড়ে রান তুলেছেন তারা।

ইংল্যান্ডের যেমন আস্থার জায়গা ওপেনিং জুটি, নিউজিল্যান্ডের জন্য তেমনই দুশ্চিন্তার। আসরের প্রথম ম্যাচে অবিচ্ছিন্ন ১৩৭ রানের জুটি গড়েছিলেন মার্টিন গাপটিল-কলিন মুনরো। ওই শেষ! এরপর একটিবারও তাদের উদ্বোধনী জুটি ছোঁয়নি পঞ্চাশ। স্কোরগুলো এমন- ৩৫, ০, ১২, ০, ৫, ২৯, ২ ও ১!

Comments

The Daily Star  | English

PM's comment ignites protests across campuses

Hundreds of students from several public universities, including Dhaka University, took to the streets around midnight to protest what they said was a "disparaging comment" by Prime Minister Sheikh Hasina earlier in the evening

14m ago