একটু ধৈর্য ধরতে বললেন কাদের

ডেঙ্গু মশা নিধন ও বংশবিস্তার রোধে কার্যকর ওষুধ আনার প্রক্রিয়া চলছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুর কাদেরে বলেছেন, “একটু ধৈর্য ধরুন।”
qader
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। স্টার ফাইল ছবি

ডেঙ্গু মশা নিধন ও বংশবিস্তার রোধে কার্যকর ওষুধ আনার প্রক্রিয়া চলছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুর কাদেরে বলেছেন, “একটু ধৈর্য ধরুন।”

আজ (২ আগস্ট) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে ‘ডেঙ্গুর বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের প্রচারপত্র বিলি ও মশক নিধন অভিযানের’ দ্বিতীয় দিনে এ কথা বলেন তিনি।

এডিস মশা নিধনে কার্যকর ওষুধ কবে নাগাদ আসতে পারে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, “অন্য দেশের কোনো অকার্যকর ওষুধ যাতে কোনো কারণে চলে না আসে, এর জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়া হচ্ছে। যাতে কার্যকর ওষুধ প্রয়োগ করা যায়। এর পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে।”

তিনি আরও বলেন, “এখানে কোনো প্রকার আন্তরিকতার ঘাটতি নেই। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী কার্যকর ওষুধ বাংলাদেশ আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে, এ জন্য একটু ধৈর্য ধরতে হবে।”

দেশে ডেঙ্গু রোগের অবস্থা মহামারি আকার ধারণ করেছে কী-না জানতে চাইলে সেতুমন্ত্রী বলেন, “রোগটাকে কী নামে আপনি অবহিত করলেন সেটা বড় কথা নয়, বড় কথা হল ডেঙ্গু জ্বরে আজকের যে অবস্থা, এডিস মশার যে ভয়াবহ উপদ্রব এবং তাণ্ডব সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে, এটা বাস্তব এবং এটা সত্য।”

কাদের বলেন, “এই বাস্তব সত্যটাকে অস্বীকার করার উপায় নেই। এই ভয়াবহতাকে কোনো নামে অবহিত করতে হবে এ ধরনের কোনো বিষয় নেই। আমরা এই বিষয়টাকে কীভাবে নিলাম সেটা দেখার বিষয়। আমরা সিরিয়াসলি নিয়েছি।”

এই সঙ্কটে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, “আমরা মনে করি, এটি একটি মানবিক ক্রাইসিস। সকল শ্রেণি পেশার মানুষ এগিয়ে আসা উচিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশের সর্বস্তরের মানুষকে আহ্বান জানিয়েছেন- ডেঙ্গু প্রতিরোধ ও এডিস মশার বংশবিস্তার আজকে যে ভয়াবহ পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে, এর বিরুদ্ধে সর্বাত্মক অভিযান পরিচালনা করার জন্য।”

“আসুন সবাই মিলে সম্মিলিত লড়াই চালিয়ে যাই এই প্রাণঘাতী মশকের বিরুদ্ধে এবং ভয়াবহ প্রাণঘাতী ডেঙ্গু রোগের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই অব্যাহত থাকবে”, যোগ করেন তিনি।

সিটি করপোরেশন এবং এলজিইডি মন্ত্রণালয় কীভাবে কাজ করবে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, “একদিকে সচেতনতা অন্যদিকে মশার বংশবিস্তার যাতে করতে না পারে, তার জন্য যা যা করা দরকার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, দুই সিটির মেয়র, আমাদের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে।”

বিএনপির উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “আমাদের পার্টির লোকজন, জনসাধারণ এবং অন্য যারা শুধু লিপ সার্ভিস দিয়ে বেড়াচ্ছেন তাদেরকে বলবো- শুধু লিপ সার্ভিস না দিয়ে আসুন অ্যাকশন প্রোগ্রামে সমন্বিতভাবে এই ডেঙ্গু রোগ এবং এডিস মশার বংশবিস্তার যাতে করতে না পারে, এর জন্য কাজ করি।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা বসে নেই, আমরা শুধু লিপ সার্ভিস দিচ্ছি না। অনেকে পত্রপত্রিকায় লিপ সার্ভিস দিচ্ছে কিন্তু বাস্তবে কোনো কার্যকারিতা নেই। ডেঙ্গু প্রতিরোধেও কার্যকারিতা নেই, বন্যা কবলিতদের পাশেও ফটোসেশন ছাড়া কোনো কার্যকারিতা তাদের নেই।”

Comments

The Daily Star  | English
hostility against female students

The never-ending hostility against female students

What was intended to be a sanctuary for empowerment has morphed into a harrowing ordeal for many female students

18h ago