ডিএনসিসির মশার ওষুধ আমদানি প্রক্রিয়া খতিয়ে দেখবে দুদক

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) মশা নিধনের ওষুধ কেনায় সম্ভাব্য আর্থিক অনিয়মের ঘটনা অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
ফগার মেশিনে মশা মারার ওষুধ প্রয়োগ করছেন সিটি করপোরেশনের একজন কর্মী। ছবি: আমরান হোসেন

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) মশা নিধনের ওষুধ কেনায় সম্ভাব্য আর্থিক অনিয়মের ঘটনা অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এই সিটি করপোরেশন থেকে মশার ওষুধ ক্রয়ের জন্য ২০১৫ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে যতগুলো টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছিল তার সব তথ্য ইতিমধ্যে দুদকের হাতে এসেছে। সরকারি দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাটি থেকে দেওয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আজ এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

দুদক আরও বলেছে, এডিস মশার ওপর কার্যকারিতা পরীক্ষা না করেই এর আগে ওষুধ আমদানি করেছে ডিএনসিসি। দেশে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাবের জন্য এই বিষয়টিকেও দায়ী হিসেবে মানছে দুদক।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তারা আরও বলেছে, মশার ওষুধ আমদানির প্রক্রিয়াটি একটি চক্র নিয়ন্ত্রণ করছে এমন অভিযোগ হটলাইন নম্বর ১০৬ এর মাধ্যমে এসেছে। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে সহকারী পরিচালক রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি দল গঠন করা হয়েছে যারা ইতিমধ্যে অভিযানে নেমেছেন।

দুদক জানতে পেরেছে যে গত চার বছর ধরে লিমিট এগ্রো প্রোডাক্ট লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনকে মশা মারার ওষুধ সরবরাহ করছে। কিন্তু এই ওষুধ শুধুমাত্র কিউলেক্স মশার বিরুদ্ধে কার্যকর।

এ বছরের জানুয়ারিতে নিকন লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে মশার ওষুধ আমদানির কাজ দিয়েছে ডিএনসিসি।

Comments

The Daily Star  | English

US supports a prosperous, democratic Bangladesh

Says US embassy in Dhaka after its delegation holds a series of meetings with govt officials, opposition and civil groups

2h ago