রেকর্ডের ম্যাচে রেকর্ডবঞ্চিত গেইল!

মাঠে নেমেই রেকর্ডের পাতায় নাম উঠিয়ে ফেলেন ক্রিস গেইল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডে ম্যাচ খেলার রেকর্ডটা এখন তার। এই বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান পেরিয়ে গেছেন ব্রায়ান লারাকে। কিংবদন্তি সাবেক তারকার আরেকটি রেকর্ড নিজের করে নেওয়ার সুযোগ ছিল গেইলের সামনে।
chris gayle
ছবি: রয়টার্স

মাঠে নেমেই রেকর্ডের পাতায় নাম উঠিয়ে ফেলেন ক্রিস গেইল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডে ম্যাচ খেলার রেকর্ডটা এখন তার। এই বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান পেরিয়ে গেছেন ব্রায়ান লারাকে। কিংবদন্তি সাবেক তারকার আরেকটি রেকর্ড নিজের করে নেওয়ার সুযোগ ছিল গেইলের সামনে। এই ফরম্যাটে ক্যারিবিয়ানদের পক্ষে সর্বোচ্চ রানের মালিক হওয়া থেকে অল্প দূরত্বে ছিলেন তিনি। কিন্তু সেই পথটা পাড়ি দিতে পারেননি। ব্যাটে হাতে গেইলের ব্যর্থতার দিনে ম্যাচটাও শেষ পর্যন্ত ভেসে গেছে বৃষ্টিতে।

বৃহস্পতিবার (৮ অগাস্ট) বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের মধ্যকার তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। গায়ানার প্রভিডেন্সে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ১৩ ওভার খেলার সুযোগ পায় উইন্ডিজ। ৪ রান করা গেইলের উইকেট হারিয়ে তারা তোলে ৫৪ রান। উইকেটে তখন ছিলেন এভিন লুইস ৩৬ বলে ৪০ ও শেই হোপ ১১ বলে ৬ রানে।

২০০৭ সালে ওয়ানডে থেকে বিদায় নেওয়া লারা উইন্ডিজের জার্সিতে খেলেছিলেন ২৯৫ ম্যাচ। ১২ বছর পর তাকে টপকে ২৯৬তম ৫০ ওভারের ম্যাচ খেলতে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামেন গেইল। কিন্তু স্মরণীয় উপলক্ষটাকে আরও রঙিন করে রাখতে পারেননি। ১১তম ওভারে চায়নাম্যান স্পিনার কুলদিপ যাদবের বলে বোল্ড হন তিনি। কমপক্ষে ২৫ বল মোকাবেলা করেছেন এমন শর্ত অনুসারে গেইলের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে ধীরগতির ইনিংস এটি। ৩১ বল খেলে মাত্র চারটি সিঙ্গেল নেন তিনি।

গেইল ও লারা দুজনই আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলেছেন মোট ২৯৯টি করে। তবে বিশ্ব একাদশের হয়ে ২০০৫ সালে গেইল খেলেছিলেন ৩ ম্যাচ। একই বছর একই দলের হয়ে লারা খেলেছিলেন ৪টি ওয়ানডে।

২৯৫ ওয়ানডের ২৮৫ ইনিংসে লারার রান ১০ হাজার ৩৪৮। উইন্ডিজের ওয়ানডে ইতিহাসে তার রানই সর্বোচ্চ। এই রেকর্ড ভাঙতে ভারতের বিপক্ষে মাত্র ১১ রান করতে হতো গেইলকে। কিন্তু রানের জন্য হাঁসফাঁস করতে থাকা এই দীর্ঘদেহী ব্যাটসম্যান তা পারেননি। ফলে ২৯৬ ওয়ানডের ২৮৯ ইনিংস শেষে তার সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৩৪২ রান।

এদিন খেলা শুরুর আগেই নামে বৃষ্টি। তাতে নির্ধারিত সময়ের দেড় ঘণ্টা পর বল মাঠে গড়ায়। তাতেও মুক্তি মেলেনি। উইন্ডিজের ইনিংসের ৫.৪ ওভারের সময় ফের হানা দেয় বৃষ্টি। তখন দলটির রান ছিল বিনা উইকেটে ৯। মাঠ উপযোগী করে আবার খেলা শুরু করা হলেও ১৩ ওভারের বেশি তা এগোয়নি। আরেক দফা বৃষ্টি নামায় খেলার ইতি টানেন দুই আম্পায়ার।

সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে আগামী রবিবার ত্রিনিদাদের পোর্ট অব স্পেনে। খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়।

Comments

The Daily Star  | English

44 lives lost to Bailey Road blaze

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

6h ago