শিমুলিয়ায় ফেরি পারাপারের অপেক্ষায় ৪ শতাধিক যান

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে আজ (১০ আগস্ট) সকাল থেকে ঈদে ঘরমুখো মানুষের ঢল নেমেছে। ঈদের আর মাত্র একদিন বাকী। শেষ সময়ে বাড়ি ছুটছে মানুষ। সকাল থেকে ঘাটে আসতে শুরু করেছে গাড়ি।
Munshiganj Shimuliya Ghat
১০ আগস্ট ২০১৯, শিমুলিয়ায় লাইফজ্যাকেট ছাড়াই পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন যাত্রীরা। অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করে ছেড়ে যাচ্ছে লঞ্চ। ছবি: স্টার

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে আজ (১০ আগস্ট) সকাল থেকে ঈদে ঘরমুখো মানুষের ঢল নেমেছে। ঈদের আর মাত্র একদিন বাকী। শেষ সময়ে বাড়ি ছুটছে মানুষ। সকাল থেকে ঘাটে আসতে শুরু করেছে গাড়ি।

সকাল নয়টায় শিমুলিয়ায় সাড়ে তিনশো প্রাইভেট গাড়ি ও ট্রাকসহ প্রায় ৪ শতাধিক গাড়ি পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে ঘাটে অপেক্ষমাণ কোনো বাস নেই। ১৭টি ফেরি, ৮৮টি লঞ্চ ও প্রায় সাড়ে তিনশো স্পীডবোট দিয়ে পার করা হচ্ছে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের।

এসব তথ্য দিয়ে বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের এজিএম মো. নাসির উদ্দিন জানান, ঘাটে সকালে গাড়ির প্রচুর চাপ ছিলো। ভোর থেকে অনেক বেশি গাড়ির চাপ ছিলো। এখন মনে হচ্ছে সকালের তুলনায় গাড়ি ঘাটে কিছুটা কম আসছে। এখন পদ্মায় স্রোত কম। তাই দ্রুত ফেরি চলতে পারছে।

এ পথে কোনোরকম হয়রানি ছাড়াই যাত্রীরা বাড়ি ফিরছে বলে দাবী করেছেন তিনি।

একইভাবে চলছে লঞ্চ ও স্পীডবোটও। সকালে লঞ্চ ও সি-বোট ঘাটে লঞ্চের অপেক্ষায় থাকতে দেখা গেছে অসংখ্য যাত্রীদের। যখনই ওপার থেকে কোনো খালি লঞ্চ ঘাটে ভিড়েছে, তখনই যাত্রীরা হুমড়ি খেয়ে পড়ছে লঞ্চে উঠতে। তবে লঞ্চে অতিরিক্ত যাত্রী বহনের অভিযোগ রয়েছে। এসব যাত্রীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়েই এ নৌরুটে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছে।

যাত্রীদের পারাপারের সুবিধার্থে বিআইডব্লিউটিএ ছাড়াও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, র‌্যাব, কোস্ট গার্ড, ফায়ার সার্ভিস, আনসার , রোভার স্কাউট ও মেডিকেল টিম ঘাটে সার্বক্ষণিকভাবে কাজ করছে।

Comments

The Daily Star  | English

How Ekushey was commemorated during the Pakistan period

The Language Movement began in the immediate aftermath of the establishment of Pakistan, spurred by the demands of student organisations in the then East Pakistan. It was a crucial component of a broader set of demands addressing the realities of East Pakistan.

14h ago