অবশেষে মুক্ত ইরানের তেল ট্যাঙ্কার

ব্রিটেন ও আমেরিকার বাধা সরিয়ে জিব্রাল্টার ছেড়েছে ইরানের তেল ট্যাঙ্কার। ‘গ্রেস ওয়ান’ নামের সেই ট্যাঙ্কারটি ‘আদ্রিয়ান দরিয়া ওয়ান’ নাম ধারণ করে ইরানি পতাকা তুলে তার গন্তব্যের দিকে যাচ্ছে।
Iran oil tanker
১৮ আগস্ট ২০১৯, ‘আদ্রিয়ান দরিয়া ওয়ান’ নাম ধারণ করা তেল ট্যাঙ্কারটিকে ছেড়ে দেওয়ার পর সেখানে ইরানের পতাকা তুলে ধরেন এক ক্রু সদস্য। ছবি: রয়টার্স

ব্রিটেন ও আমেরিকার বাধা সরিয়ে জিব্রাল্টার ছেড়েছে ইরানের তেল ট্যাঙ্কার। ‘গ্রেস ওয়ান’ নামের সেই ট্যাঙ্কারটি ‘আদ্রিয়ান দরিয়া ওয়ান’ নাম ধারণ করে ইরানি পতাকা তুলে তার গন্তব্যের দিকে যাচ্ছে।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংবাদ সংস্থা রয়টার্স গতকাল (১৮ আগস্ট) জানায়, ইরানের বিপ্লবী গার্ডের সঙ্গে তেল ট্যাঙ্কারটির সম্পর্ক রয়েছে- এমন অভিযোগে এটিকে আটকানোর চেষ্টা করেছিলো যুক্তরাষ্ট্র।

ট্যাঙ্কারটিতে প্রায় ১ মিলিয়ন ডলারের তেল রয়েছে উল্লেখ করে রয়টার্সের প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, গত ১৬ আগস্ট ট্রাম্প প্রশাসন ট্যাঙ্কারটিকে আটকের নির্দেশ দিলে এর উত্তরে জিব্রাল্টার জানায় যে তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) আইনের প্রতি দায়বদ্ধ, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি নয়।

অন্যদিকে, ট্যাঙ্কারটিতে সিরিয়ার তেল রয়েছে এবং তা ইইউ আইন অনুযায়ী নিষিদ্ধ- এমন অভিযোগে ব্রিটেন ট্যাঙ্কারটিকে ভূমধ্যসাগরে ব্রিটিশ-শাসিত জিব্রাল্টার উপকূলে আটক করলেও জিব্রাল্টারের আদালত বলেছে, ইইউ আইনেও ট্যাঙ্কারটিকে আটকের কোনো সুযোগ নেই।

শিপিং ডাটার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থাটি আরো জানায়, ট্যাঙ্কারটি আটকে রাখার কোনো যৌক্তিক কারণ নেই- আদালত থেকে গত ১৬ আগস্ট এমন ঘোষণা আসার পর গতকাল (১৮ আগস্ট) রাতে নিজের গন্তব্যের দিকে রওয়া দেয় এটি। তবে এর গন্তব্য কোথায় তা প্রকাশ করা হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ৪ জুলাই ভূমধ্যসাগরের ‘গ্রেস ওয়ান’ তেল ট্যাঙ্কারটিকে ব্রিটিশ নৌবাহিনী আটক করার পর পশ্চিমের দেশগুলোর সঙ্গে উপসাগরীয় দেশটির সংঘাতময় পরিবেশ সৃষ্টি হয়। প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে ব্রিটেনের একটি ট্যাঙ্কারকে হরমুজ প্রণালীতে ‘আটকে’ দিয়েছিলো ইরান।

আরো পড়ুন:

অবশেষে ইরানি তেল ট্যাঙ্কার ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলো ব্রিটেন

ইরানি তেল ট্যাঙ্কার ছাড়ের শেষ মুহূর্তে আমেরিকার বাধা

 

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

8h ago