ক্ষমা চাইলেন জাকির নায়েক

মালয়েশিয়ায় জাতিবিদ্বেষমূলক মন্তব্যের কারণে মালয়েশীয়দের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন ভারতের বিতর্কিত ইসলামী বক্তা জাকির নায়েক।
zakir naik
ভারতের বিতর্কিত ইসলামী বক্তা জাকির নায়েক। ছবি: সংগৃহীত

মালয়েশিয়ায় জাতিবিদ্বেষমূলক মন্তব্যের কারণে মালয়েশীয়দের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন ভারতের বিতর্কিত ইসলামী বক্তা জাকির নায়েক।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে আজ (২০ আগস্ট) বলা হয়, মালয়েশিয়ার জাতিগত ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের লক্ষ্য করে স্পর্শকাতর মন্তব্য করায় গতকাল পুলিশের জেরার মুখে পড়েন জাকির নায়েক। এর কয়েক ঘণ্টা পর ক্ষমা চান তিনি।

চলতি মাসের শুরুতে তিনি এক বক্তব্যে বলেন যে ভারতের মুসলমানদের তুলনায় মালয়েশিয়ায় বসবাসকারী হিন্দুরা “শতভাগ বেশি অধিকার” ভোগ করেন। এছাড়াও, দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার মুসলিম দেশটিতে চীনারা অতিথির মর্যাদা পান।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, ভারতে অর্থপাচার ও বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের অভিযোগে অভিযুক্ত জাকির নায়েককে তার সাম্প্রতিক মন্তব্যের জন্যে গতকাল মালয়েশিয়ার পুলিশ প্রায় ১০ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে।

মালয়েশিয়ায় গত তিন বছর থেকে স্থায়ীভাবে বসবাসকারী জাকির নায়েক তার মন্তব্যের জন্যে ক্ষমা চেয়েছেন। তবে বলেছেন, তিনি বর্ণবাদী নন। তার বক্তব্যের অংশবিশেষ তুলে ধরা হয়েছে ও তা “অতিরঞ্জিতভাবে” প্রকাশ করা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আজ এক বার্তায় জাকির নায়েক বলেন, “কোনো ব্যক্তি বা সম্প্রদায়কে আঘাত দেওয়ার কোনো উদ্দেশ্য আমার ছিলো না। এটি ইসলামের মৌলিক শিক্ষার বিরোধী। এই ভুল বোঝাবুঝির জন্যে আমি আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী।”

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ার মোট জনসংখ্যার ৬০ শতাংশ মুসলমান এবং বাকিরা চীনা ও ভারতীয় বংশোদ্ভূত। দেশটিতে জাতি ও ধর্মগত বিষয়গুলোকে বেশ আবেগের চোখে দেখা হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Hasina writes back to Biden

Prime Minister Sheikh Hasina has written back to US President Joe Biden

45m ago