সাদমানের সঙ্গী ঠিক করতেই স্কোয়াড ঘোষণায় দেরি

আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের স্কোয়াডে কারা থাকছেন, তা মোটামুটি তৈরিই করে ফেলেছেন নির্বাচকরা। কেবল একটি জায়গা নিয়ে চলছে আলাপ-আলোচনা। তামিম ইকবাল বিশ্রামে থাকায় ওপেনিংয়ে সাদমান ইসলামের সঙ্গী কে হবেন? পুরনো অভিজ্ঞ কেউ, নাকি একদমই নতুন কোন মুখ। হাতে থাকা কয়েকটি নাম নিয়ে দ্বিধা থাকায় দল ঘোষণায় দেরি হচ্ছে বলে জানালেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।
Shadman Islam
টেস্টে নামার নিবিড় অনুশীলনে সাদমান ইসলাম। তামিম না থাকায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে নতুন সঙ্গী নিয়ে নামবেন তিনি। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের স্কোয়াডে কারা থাকছেন, তা মোটামুটি তৈরিই করে ফেলেছেন নির্বাচকরা। কেবল একটি জায়গা নিয়ে চলছে আলাপ-আলোচনা। তামিম ইকবাল বিশ্রামে থাকায় ওপেনিংয়ে সাদমান ইসলামের সঙ্গী কে হবেন? পুরনো অভিজ্ঞ কেউ, নাকি একদমই নতুন কোন মুখ। হাতে থাকা কয়েকটি নাম নিয়ে দ্বিধা থাকায় দল ঘোষণায় দেরি হচ্ছে বলে জানালেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে অভিষেকের পর থেকে আস্থা যুগিয়ে টেস্টে ওপেনিং সংকটের সমাধানের ইঙ্গিত দেন সাদমান। অভিষেকেই খেলেন ১৯৯ বলে ৭৬ রানের ইনিংস। তার ব্যাটে দেখা মিলেছিল থিতু ভাব। পরে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে আর কোন ফিফটি পাননি। কিন্তু প্রতি ইনিংসেই বিরূপ পরিস্থিতিতে তামিমকে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে আনেন ভালো সূচনা।

ওপেনিংয়ে একটা জায়গা আপাতত তারই। আরেকটি জায়গার জন্য আলোচনায় আছেন লিটন দাস, সৌম্য সরকার, জহুরুল ইসলাম ও সাইফ হাসান। এরমধ্যে গত দুই সিরিজে লিটন ও সৌম্য খেলেছেন নিচের দিকে। নিউজিল্যান্ডে পাঁচে নেমে সৌম্য খেলেন ১৪৯ রানের চোখ ধাঁধানো ইনিংস। ওই সিরিজে লিটন রান না পেলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিচে নেমে রান আছে তার।

এই দুজনের কাউকে ওপেন করতে পাঠিয়ে তাদের পজিশন ফের উলটপালট করা হবে কিনা তা আছে চিন্তায়। এদের বাইরে বাকি দুজনের একজন জহুরুল সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন ২০১৩ সালে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ ফর্ম আর অভিজ্ঞতার বিচারে বিবেচনায় তিনি। বাকিজন একেবারেই তরুণ সাইফের এখনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়নি। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ থেকে এইচপি দল সব জায়গায় রান করে দলে ঢোকার দাবি জানাচ্ছেন তিনিও।

তবে সাইফের জন্য নেতিবাচক দিক আবার সাদমানের অনভিজ্ঞতা। দুই প্রান্তে দুজন আনকোরা ওপেনারকে খেলানোর ঝুঁকিও নিতে ভাবছে টিম ম্যানেজমেন্ট। সোমবার নির্বাচক হাবিবুল এসব হিসেব নিকেশ করেই জানালেন দল ঘোষণায় বিলম্ব আসলে তা নিয়েই, ‘গত সিরিজ ও (সাদমান) ভালোই করেছে। কিন্তু ম্যাচের দিকে (৫ টেস্ট) যদি দেখেন এখনো সে তরুণ, মাত্র শুরু করেছে। অতটা অভিজ্ঞ নয়। যেহেতু তামিম সঙ্গে ছিল সেজন্য ওর উপর অতটা চাপ ছিল না। ওর সঙ্গে একদম ফ্রেশ কাউকে শুরু করাব কিনা সেটা চিন্তা আছে।  আবার পুরনো কাউকে এনেও করানো যায় কারণ তরুণ একজন থাকল সাথে একজন অভিজ্ঞ থাকল। এইসব বিষয় নিয়ে চিন্তা করতে গিয়ে স্কোয়াড দিতে দেরি হচ্ছে।’

দল ঘোষণার সম্ভাব্য তারিখ দিয়ে হাবিবুল জানালেন বাকি স্কোয়াড ঠিকই হয়ে আছে। দু’একটা জায়গা নিয়ে সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে সময় নিচ্ছেন তারা, ‘কোচ, অধিনায়কের সঙ্গে টেস্ট দল নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা মোটামুটি একটা চিন্তা ভাবনা করেছি কেমন হতে পারে। আমরা একটু সময় নিচ্ছি যেহেতু দেশে খেলা। সম্ভবত ৩০ বা ৩১ তারিখে মূল স্কোয়াড দিতে পারব।’

Comments

The Daily Star  | English

$7b pledged in foreign funds

When Bangladesh is facing a reserve squeeze, it has received fresh commitments for $7.2 billion in loans from global lenders in the first seven months of fiscal 2023-24, a fourfold increase from a year earlier.

2h ago