‘পিএসজির চাহিদায় সায় দেয়নি বার্সা, তাই সমঝোতা হয়নি’

চূড়ান্ত প্রস্তাব নিয়ে গেল মঙ্গলবার ফ্রান্সে গিয়েছিলেন বার্সেলোনার কর্মকর্তারা। লক্ষ্য ছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) কর্তাদের মন ভরিয়ে নেইমারকে ন্যু ক্যাম্পে ফেরত নিয়ে আসা। দিনভর আলোচনার পর বার্সার ক্লাব ডিরেক্টর হাভিয়ের বোরদাস দিয়েছিলেন ইতিবাচক মত- চুক্তি সম্পন্ন করার কাছাকাছি দুপক্ষ। কিন্তু দুদিন পেরিয়ে গেলেও আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা আসেনি। তার ওপর পিএসজির স্পোর্টিং ডিরেক্টর লিওনার্দো শুক্রবার রাতে বলেছেন, তাদের চাহিদা পূরণ না হলে চুক্তির কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না তিনি!
নেইমার। ফাইল ছবি

চূড়ান্ত প্রস্তাব নিয়ে গেল মঙ্গলবার ফ্রান্সে গিয়েছিলেন বার্সেলোনার কর্মকর্তারা। লক্ষ্য ছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) কর্তাদের মন ভরিয়ে নেইমারকে ন্যু ক্যাম্পে ফেরত নিয়ে আসা। দিনভর আলোচনার পর বার্সার ক্লাব ডিরেক্টর হাভিয়ের বোরদাস দিয়েছিলেন ইতিবাচক মত- চুক্তি সম্পন্ন করার কাছাকাছি দুপক্ষ। কিন্তু দুদিন পেরিয়ে গেলেও আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা আসেনি। তার ওপর পিএসজির স্পোর্টিং ডিরেক্টর লিওনার্দো শুক্রবার রাতে (৩১ অগাস্ট) বলেছেন, তাদের চাহিদা পূরণ না হলে চুক্তির কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না তিনি! এমন খবরই পরিবেশন করছে মার্কা ও ইএসপিএন।

বার্সা ও পিএসজির মধ্যে আলোচনা হওয়ার পর বেশ কয়েকটি ফরাসি গণমাধ্যম দাবি করেছিল, কাতালানদের প্রস্তাব মেনে নিয়েছে লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নরা। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছিল, ২৭ বছর বয়সী নেইমারকে ফিরে পেতে বার্সেলোনা খরচ করবে ১৫৪ মিলিয়ন পাউন্ড। তবে পিএসজিকে এ অর্থ তিনটি কিস্তিতে দেবে বার্সেলোনা। আর ইএসপিএন জানিয়েছিল, প্রথম দফায় ৩৬ মিলিয়ন পাউন্ড দেবে তারা। এরপর ২০২০ সালে ৫৯ মিলিয়ন পাউন্ড এবং ২০২১ সালে বাকি ৫৯ মিলিয়ন পাউন্ড দেবে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। তবে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের দাবিগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করে লিওনার্দো তখনও বলেছিলেন, আমরা ধীরে সুস্থে কথা বলব।

শুক্রবার রাতে ফরাসি লিগ ওয়ানের ম্যাচে মেতজকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। ম্যাচ শেষে লিওনার্দো কথা বলেন নেইমার ইস্যু সম্পর্কে। তবে তার কথায় স্পষ্ট হয়ে উঠেছে যে, ব্রাজিলিয়ান তারকার দলবদল নিয়ে সমঝোতায় পৌঁছানো থেকে বেশ দূরেই অবস্থান করছে দুপক্ষ, ‘আলাপ-আলোচনা এখনও শেষ হয়ে যায়নি, কিন্তু এখনও কোনো সমঝোতা হয়নি কারণ আমাদের চাহিদায় সায় দেয়নি বার্সা।’ তা পিএসজির চাহিদাটা কি? লিওনার্দো নতুন করে গেয়েছেন সেই পুরনো গান, ‘এ বিষয়ে পিএসজি ও নেইমারের অবস্থান বরাবরই পরিষ্কার। যদি সন্তোষজনক কোনো প্রস্তাব আসে তবে সে (নেইমার) যেতে পারে। কিন্তু এমন কিছু ঘটেনি।’

গ্রীষ্মকালীন দলবদলের কার্যক্রম বন্ধ হতে আর বাকি মাত্র দুদিন। আগামী সোমবার (২ সেপ্টেম্বর) রাতেই শেষ হয়ে যাবে নেইমারকে দলে ফেরানোর সমস্ত সুযোগ। তবে বার্সা নতুন করে আর কোনো প্রস্তাব দিতে রাজি নয়। ইএসপিএনের বরাত দিয়ে জানিয়েছে গোল ডট কম। তাদের সূত্র অনুসারে, নেইমারের জন্য ১১৮ মিলিয়ন পাউন্ড দাবি করেছিল পিএসজি। সঙ্গে চেয়েছিল ইভান রাকিতিচ, জ্যাঁ-ক্লেয়ার তোদিবো ও উসমান দেম্বেলেকে। এদের মধ্যে ফরাসি ফরোয়ার্ড দেম্বেলেকে ধারে দলে নিতে চেয়েছিল তারা। কিন্তু পিএসজির চাহিদায় সম্মত হয়নি লা লিগা চ্যাম্পিয়নরা।

এর আগে নেইমারের দলবদলের সম্ভাবনা নিয়ে একের পর এক বিভিন্ন রকমের খবর আসায় বিরক্তি প্রকাশ করেছেন বার্সা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে। তার কাছে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেওয়া হয়েছিল তার বিরক্তির মাত্রাটা কীরূপ। উত্তরে তিনি জানিয়েছেন, ‘দশের মধ্যে সাড়ে নয়!’

Comments

The Daily Star  | English
Israel's occupation of Palestine

Israeli occupation 'affront to justice'

Arab states tell UN court; UN voices alarm as Israel says preparing for Rafah invasion

3h ago