খেলা

রশিদ-জহিরের স্পিনে কাবু বিসিবি একাদশ

বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে নামার আগে নিজেদের স্পিন শক্তি দেখিয়েছে আফগানিস্তান। অধিনায়ক রশিদ খান আর চায়নাম্যান জহির খান মিলে লেগ স্পিনে কাবু করে মাত্র ১২৩ রানে গুটিয়ে দিয়েছেন বিসিবি একাদশকে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে নামার আগে নিজেদের স্পিন শক্তি দেখিয়েছে আফগানিস্তান। অধিনায়ক রশিদ খান আর চায়নাম্যান জহির খান মিলে লেগ স্পিনে কাবু করে মাত্র ১২৩ রানে গুটিয়ে দিয়েছেন বিসিবি একাদশকে।

সোমবার চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে দু’দিনের ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে ব্যাট করতে গিয়ে নাজেহাল অবস্থা হয় নুরুল হাসান সোহানদের। আফগান স্পিনারদের দাপটে মাত্র ৪৪.১ ওভার টিকতে পেরেছেন তারা। আফগানদের করা ২৮৯ রানের জবাবে বিসিবি একাদশ গুটিয়ে গেছে মাত্র ১২৩ রানে।

এনামুল হক বিজয়, নাঈম ইসলাম, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, নুরুল হাসান সোহানদের মতো ব্যাটসম্যান থাকার পরও দেড় সেশনও ব্যাট করতে পারেনি বিসিবি একাদশ। বাংলাদেশের এই দলের ব্যাটসম্যানদের স্পিন ঘূর্ণিতে বেশি ভুগিয়েছেন চায়নাম্যান জহির।

১১.৩ ওভার বল করে মাত্র ২৪ রানে ৫ উইকেট নিয়েছেন তিনি। অধিনায়ক রশিদ পেয়েছেন ২৬ রানে ৩ উইকেট। লেগ স্পিনের বিপক্ষে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের চিরায়ত দুর্বলতা এদিন আরও একবার খোলাসা হয়েছে। দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ২৯ রান করে আল-আমিন জুনিয়র।

আগের দিনের ৮ উইকেটে ২৪২ রান নিয়ে নেমে এদিন মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে আরও ৪২ রান যোগ করে ইনিংস ঘোষণা করে আফগানরা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমেই বিপর্যয়ে পড়ে বিসিবি একাদশ। দলের ১৬ রানে ওপেনার সাব্বির হোসেনকে ফেরান পেসার শাপুর জাদরান। ১৯ রান করা এনামুলকে এলবিডব্লিও করে উইকেট নেওয়া শুরু করেন রশিদ। আহমেদ শিরজাদ ছাঁটেন ফজলে রাব্বিকে।

অভিজ্ঞ নাঈম ইসলামকে আউট করে উইকেট নেওয়া শুরু জহিরের। ৬০ রানে ৪ উইকেট খুইয়ে বিপাকে পড়া বিসিবি একাদশ আর দাঁড়াতে পারেনি। জহির, রশিদরা টপটপ উইকেট গিলে ধসিয়ে দেন সোহানদের ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

আফগানিস্তান প্রথম ইনিংস: ৯৯ ওভারে ২৮৯/৯ (ডিক্লে) 

বিসিবি একাদশ প্রথম ইনিংস: ৪৪.১ ওভারে ১২৩  (এনামুল ১৯, সাব্বির ৪, ফজলে ৮, নাঈম ১৩, আল-আমিন ২৯, সোহান ১৫, ইরফান ৯, ফারদিন ১৪, সুমন ৩, রানা ০, মানিক ২* ; ইয়ামিন /১২, শাপুর ১/৪, নবী ০/১৮, রশিদ ৩/২৬, শিরজাদ ১/২৩, জহির ৫/২৪, কাইস ০/১০)

Comments

The Daily Star  | English

DNCC completes waste removal on 2nd day

Dhaka North City Corporation has removed 100 percent of the waste generated during Eid-ul-Azha

1h ago