শীর্ষ খবর

কেন লাইসেন্স বাতিল হবে না, নোটিস পেল জিপি-রবি

দেশের বড় দুই মোবাইল ফোন অপারেটরের গ্রামীণফোন ও রবির টুজি ও থ্রিজি লাইসেন্স কেন বাতিল কর হবে না জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিস ইস্যু করেছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন।

দেশের বড় দুই মোবাইল ফোন অপারেটরের গ্রামীণফোন ও রবির টুজি ও থ্রিজি লাইসেন্স কেন বাতিল কর হবে না জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিস ইস্যু করেছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন।

খবরটি দ্যা ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক।

নোটিসের জবাব দেওয়ার জন্যে ৩০ দিন সময় দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন ২০০১ এর ৪৬(২) ধারা অনুসারে অপারেটর দুটির টুজি ও থ্রিজির লাইসেন্স বাতিল বিষয়ে বলা হলেও ফোরজি নিয়ে কোনো কথা বলা হয়নি।

“আইনগত সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেই আমরা এই নোটিস ইস্যু করালাম। এখন তারা জবাব দিক,” বলেন জহুরুল।

তিনি বলেন, অডিটের মাধ্যমে নিষ্পত্তি হওয়া জনগণের টাকা দফায় দফায় চাওয়ার পরেও দিচ্ছে না দুই মোবাইল ফোন অপারেটর। সে কারণে বাধ্য হয়ে আইনের ধারা মেনে কারণ দর্শানোর নোটিস ইস্যু করা হলো।

১৯৯৭ সালে অপারেটর দুটির কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত হিসাবের ওপর অডিট করে বিটিআরসি। পরে বিটিআরসি গ্রামীণফোনের কাছে ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে বলে দাবি করে। একই সঙ্গে রবির কাছে ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা পাওনা দাবি তাদের।

অপারেটর দুটি বারবার অডিটের মাধ্যমে উত্থাপিত হওয়া দাবি নিয়ে নতুন করে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছে। তবে বিটিআরসি সে আবেদনে সাড়া দেয়নি।

বিটিআরসি বলছে, অপারেটরদের ব্যাখ্যার ওপর এখন তাদের ভাগ্য নির্ভর করছে।

Comments

The Daily Star  | English

Situation still tense at Shanir Akhra

Protesters, cops hold positions after hours of clashes; one feared dead; six wounded by shotgun pellets; Hanif Flyover toll plaza, police box set on fire

10h ago