খেলা

‘আমরা বড় মন নিয়ে খেলতে পারি না’

আফগানিস্তানের বিপক্ষে চরম বিপর্যয়ে পড়ার পর অধিনায়ক সাকিব আল হাসান জানিয়েছেন তারা ব্যাট করেন অনেক ভয় নিয়ে, খেলেন অনেক চাপ নিয়ে। টেকনিক্যাল সমস্যার পাশাপাশি বড় মন নিয়ে খেলতে না পারায় তাই রিষ্ট স্পিন হয়েছে দুর্বোধ্য।
Shakib Al Hasan
ফাইল ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আফগানিস্তানের বিপক্ষে চরম বিপর্যয়ে পড়ার পর অধিনায়ক সাকিব আল হাসান জানিয়েছেন তারা ব্যাট করেন অনেক ভয় নিয়ে, খেলেন অনেক চাপ নিয়ে। টেকনিক্যাল সমস্যার পাশাপাশি বড় মন নিয়ে খেলতে না পারায় তাই রিষ্ট স্পিন হয়েছে দুর্বোধ্য।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে সফল হতে যেমন ব্যাট করা দরকার। কোন ব্যাটসম্যানই করতে পারেননি তা। কেউ হয় মেরেটেরে সফল হতে চেয়েছেন, এক পর্যায়ে গিয়ে আর পারেননি। কেউবা আবার থিতু হতে সময় নিতে চেয়েছেন, কিন্তু আচমকা দুনোমনো হয়ে থামিয়েছেন দৌড়।

৩৯৮ রান তাড়ায় নেমে ৬ উইকেটে ১৩৬ রান তুলে দিন পার করার পর সাকিব ব্যাটসম্যানদের এমন মনস্তাত্ত্বিক সংকট নিয়ে হাজির হয়েছিলেন সংবাদ সম্মেলনে। মনস্তাত্ত্বিক না টেকনিক্যাল? সাকিবের চোখে সমস্যা দুটোই, ‘দুইটাই বলতে পারেন। টেকনিক্যালি সমস্যাও বলতে পারে। যেহেতু রিষ্ট স্পিনার খেলি না। সেটা বাঁহাতি বা ডানহাতি দুইটাই আমাদের জন্য নতুন কিছু। স্বাভাবিকভাবেই আমাদের মানিয়ে নেওয়ার একটা ব্যাপার থাকবে এখানে। যদিও আমরা পরিকল্পনা করেছি, বা প্রস্তুতি নিয়েছি। আমাদের যারা নেটে বোলার আছে এরকম, ওদের এনে আমরা প্র্যাকটিস করেছি।’

‘যতক্ষণ না আপনি ম্যাচ খেলছেন বা সফল হচ্ছেন, ততক্ষণ  ওই প্রস্তুতিটা খুব একটা কাজে আসবে না। যখন ওটা খেলার পরে ম্যাচে সফল হবেন তখন ওটা কাজে আসবে।’

কেউ মারতে গিয়ে আউট হয়েছেন, কেউ মারবেন না ছাড়বেন তা ভাবতে গিয়েই হয়েছেন কাবু। সাকিব বললেন অ্যাপ্রোচে সমস্যা নেই, সমস্যা প্রয়োগে আর সেই সমস্যার কারণ তাদের মন,  ‘আমি বলব না কারও অ্যাপ্রোচে সমস্যা ছিল। আমি বলব প্রয়োগে অনেক প্রবলেম। ওই বড় মন নিয়ে খেলার একটা সমস্যা। আপনি প্রয়োগ করতে না পারার একটা সমস্যা হচ্ছে, যখন আপনি ভয়ে ভয়ে মারতে যাবেন তখন প্রয়োগে সমস্যা। ’

‘আমার কাছে মনে হয়েছে আমরা অনেক ভয় নিয়ে খেলি, অনেক চাপ নিয়ে খেলি। আসলে দিন শেষে এটা ক্রিকেট ম্যাচ, অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ আমাদের জন্যে। কিন্তু দুনিয়ার সব কিছুই এটা না। কিন্তু আমরা অনেক সময় এরকম ভেবে যেটা করি যে, এত বেশি চাপ নিয়ে ফেলি নিজেদের ওপরে  পারফর্ম করা আমাদের জন্য কষ্টকর হয়। এবং যখন করতে পারি না তখন চাপটা  আরও বেশি পড়ে।’

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka Airport Third Terminal: 3rd terminal to open partially in October

HSIA’s terminal-3 to open in Oct

The much anticipated third terminal of the Dhaka airport is likely to be fully ready for use in October, enhancing the passenger and cargo handling capacity.

9h ago