খেলা

এত হতাশ হওয়ার কিছু দেখছেন না বোর্ড প্রধান

হতাশার বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কা সফরে হোয়াইটওয়াশ, এবার ঘরে মাঠে নবীন আফগানিস্তানের কাছে টেস্টে বিশাল হার। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটের ভীষণ দুর্দিন চলছে। তবে এই খারাপ সময়ের পেছনে গভীর কোন সংকট খুঁজে পাচ্ছেন না বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান, ঘাটতি দেখছেন না বোর্ডের। তারমতে কেবল কয়েকজন খেলোয়াড়ের বাজে ফর্মের কারণেই হয়েছে এমন অবস্থা, এতে হতাশ হওয়ার কিছুই নেই।
Nazmul Hasan
ছবি: স্টার

হতাশার বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কা সফরে হোয়াইটওয়াশ, এবার ঘরে মাঠে নবীন আফগানিস্তানের কাছে টেস্টে বিশাল হার। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটের ভীষণ দুর্দিন চলছে। তবে এই খারাপ সময়ের পেছনে গভীর কোন সংকট খুঁজে পাচ্ছেন না বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান, ঘাটতি দেখছেন না বোর্ডের। তারমতে কেবল কয়েকজন খেলোয়াড়ের বাজে ফর্মের কারণেই হয়েছে এমন অবস্থা, এতে হতাশ হওয়ার কিছুই নেই।

সেমিফাইনালের আশা নিয়ে বিশ্বকাপে গিয়ে অষ্টম হয়ে দেশে ফিরে বাংলাদেশ। পর পরই শ্রীলঙ্কায় গিয়ে তিন ওয়ানডেতেই হেরে হয় হোয়াইটওয়াশড। এসব কিছু ছাপিয়ে গেছে সম্প্রতি আফগানিস্তানের কাছে বাজেভাবে টেস্ট হেরে।

মাত্র তৃতীয় টেস্টে নেমে আফগানরা ১১৫ টেস্টের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন বাংলাদেশকে উড়িয়ে দেয় ২২৪ রানের বিশাল ব্যবধানে। চট্টগ্রাম টেস্টের কোন একটি জায়গাতেও আফগানদের কাছে পাল্লা দিতে পারেনি সাকিব আল হাসানের দল।

টেস্ট চলাকালীনই দলের পরিকল্পনা নিয়ে সমালোচনা করেছিলেন বিসিবি প্রধান। এই হারের পর ক্রিকেটার সঙ্গে বৈঠক করে এবার তাদের পক্ষেই ব্যাট ধরলেন তিনি, ‘টেস্ট ম্যাচটা আমরা হেরে গেছি তাই সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে বসেছি, আজ আরো অনেকের সাথে কথা হল। আপনারা অনেকে ভাবছেন শেষ হয়ে গেছে, আমি বিশ্বাস করি না।’

‘আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি আমাদের এটা আসল চিত্র না। তামিম এখন বিশ্রামে। আমাদের তামিম, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ আছে। আমাদের দেখা মুশফিক বাংলাদেশের সেরা ব্যাটসম্যান। তামিম সেরা ওপেনার।  সাকিব বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার। রিয়াদ ওয়ান্ডারফুল খেলোয়াড়। এরা কেউ শেষ হয়ে যায়নি। এদের বাদ দিয়ে আমার নতুন খেলোয়াড় আনতে হবে। এমন কোন চিন্তায় আমার মাথায় আসেনি। ’

‘আমি এখনো মনে করি, তামিম, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ এরা যেকোনো দলের বিপক্ষে, যেকোনো খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করতে পারে। আমার ধারণা ছিল মুশফিক এবারই সেঞ্চুরি করবে। হয়নি।’

আফগানিস্তানের কাছে হারলেও কোন কিছুই শেষ হয়ে যায়নি বলে বিশ্বাস বোর্ড প্রধানের, ‘আমরা যখন ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছি তারা তো শেষ হয়নি। সেই ইংল্যান্ড কিন্তু এবার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। কাজেই এত হতাশ হওয়ার কিছু দেখছি না। পারফর্ম করতে হবে।’

টেস্ট হারের পর অধিনায়ক সাকিব ঘরোয়া ক্রিকেটের দুর্বল কাঠামো নিয়ে সমালোচনা করলেও নাজমুলের চোখে দল টানা খারাপ করলেও প্রশাসনিকভাবে বোর্ডের কোন ঘাটতি নেই। কেবল ক্রিকেটারদের ফর্মহীনতাতেই পড়তে হচ্ছে এই দশায়,  ‘স্মুথলি চলছে না। তারা ফর্মে নাই। তামিম ফর্মে নাই, রিয়াদ ফর্মে নাই, মুশফিক কি আফগানিস্তানের মতো দলের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করতে পারে না? মুশফিকের মতো ব্যাটসম্যান বাংলাদেশে আছে না কি কেউ। সাকিব পারে না? সাকিব বিশ্বের সেরা বোলারদের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করে আসছে বিশ্বকাপে। তাহলে হয় নাই। আপনারা মনে করছেন এরা শেষ হয়ে গেছে, এরা শেষ। আমি মনে করি সাময়িক। ওরে ঘুরে দাঁড়াবে।

‘সবার ফর্ম একটু খারাপ। আর কিছু না। আমি প্রসাশনিকভাবে কোন ঘাটতি দেখছি না। 

টেস্টের এই হার নিয়ে পড়ে না থেকে বিসিবি শীর্ষ কর্তা ক্রিকেটারদের দিলেন নির্ভার থাকার সাহস। টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের খেলোয়াড়দের রাখলেন এগিয়ে,  ‘গত টেস্টে মনে হয়েছে বেশি সিরিয়ারসি নিয়েছে। আমি বলেছি নির্ভার থাকতে। ওদের কাছে সৌম্য সরকার, লিটন দাস, সাব্বিরের মতো টি-টোয়েন্টি স্পেশালিষ্ট নাই। ওদের মোস্তাফিজ নেই, সাইফুদ্দিন নেই। ওদের হয়ত দু’একজন আছে।   সৌম্য, লিটন, সাব্বির তারা অবিশ্বাস্য খেলোয়াড়। টি-টোয়েন্টিতে যেকোন দলের যেকোনো বোলারকে ওরা তুলোধুনো করে দিতে পারে।’

সাম্প্রতিক সময়ের খারাপ অবস্থার জন্য আগের সব অবদান না ভুলতেও অনুরোধ জানান বিসিবি প্রধান, ‘মাশরাফিকে যাকে নিয়ে ফেসবুকে অনেক কথা। আরে এই মাশরাফি আমাদের কম ম্যাচ জেতায়নি। ত্রিদেশীয় সিরিজ জিতিয়ে নিয়ে আসছে অসাধারণ খেলেছে মাশরাফি। একটা বিশ্বকাপে একটু খারাপ খেলেছে। মনে হয় যেন কি হয়ে গেল। আমি এখনো বিশ্বাস করি বাংলাদেশ এই দল যেকোনো দলকে যেকোনো সময় হারাতে পারে। ’

Comments