ক্রিকেট

দুই নবীনের পক্ষে ব্যাট চালালেন মোসাদ্দেক

বাংলাদেশ ক্রিকেটে সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে বেশি অস্থিরতার মধ্যে কাটাচ্ছেন হয়তো নির্বাচকরাই। কদিন পরপরই দলের বড় বড় রদবদল আনছেন। ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ দুটি ম্যাচের জন্যও আনা হয়েছে বড় পরিবর্তন। এরমধ্যে দুটি মুখ আবার একেবারেই আনকোরা। তবে একেবারে নতুন হলেও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভালো করবেন বলেই বিশ্বাস করেন দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

বাংলাদেশ ক্রিকেটে সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে বেশি অস্থিরতার মধ্যে কাটাচ্ছেন হয়তো নির্বাচকরাই। কদিন পরপরই দলের বড় বড় রদবদল আনছেন। ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ দুটি ম্যাচের জন্যও আনা হয়েছে বড় পরিবর্তন। এরমধ্যে দুটি মুখ আবার একেবারেই আনকোরা। তবে একেবারে নতুন হলেও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভালো করবেন বলেই বিশ্বাস করেন দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

সাগরিকায় অনুষ্ঠিতব্য শেষ দুটি ম্যাচের জন্য দলে ডাক পেয়েছেন তরুণ মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। এ দুই তরুণের উপরই আশাবাদী মোসাদ্দেক, 'আমাদের দলে একজন লেগস্পিনারও দরকার আছে। সেটা সবাই অনেক আগে থেকেই বুঝতে পারছে। এবং বিপ্লবের কথাটা যেটা আসছে ভালো উইকেটেও দেখলাম ভালো বোলিং করে আসছে। ও ভালো কিছু করবে আশা করছি। আর নাঈম তো শেষ ওয়ানডেতেও ভালো খেলে আসছে এবং এ দলে ভালো খেলে আসছে। আশা করছি ওরা ভালো কিছু করবে সামনে।'

ত্রিদেশীয় সিরিজে শুরুতেও ইয়াসিন আরাফাত মিশুকে দলে নেওয়া হয়েছিল। এছাড়া ফেরানো হয়েছিল শেখ মেহেদী হাসানকেও। কিন্তু কোন ম্যাচ না খেলিয়েই বাদ দেওয়া হয় তাদের। তাতে নির্বাচকদের অস্থিরতার চিত্র ফুটে ওঠে প্রকটভাবে। তবে ধারাবাহিকভাবে ভালো ক্রিকেট খেলেই আমিনুল ও নাঈম জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন তা বেশ জোর গলাতেই বললেন মোসাদ্দেক, 'যারা দলে আসছে সবাই কিন্তু পারফর্ম করেই আসছে। এ টিম বলেন হাই পারফরম্যান্স বলেন পারফর্ম করেই আসছে... অবশ্যই ভালো পারফর্ম করছে বলেই এরা এখানে আসছে।'

গত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে খেলেছেন আমিনুল। বিশ্বকাপে খুব একটা জ্বলে উঠতে না পারলেও গত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ভালো খেলেছেন। বিকেএসপির হয়ে ১৩ ম্যাচে ৪টি ফিফটিতে করেছেন ৪৪০ রান। স্ট্রাইক রেটটা ছিল ৬৬ এর একটু বেশি। খেলেছেন ২টি টি-টোয়েন্টিও। তবে নির্বাচকদের দাবী লেগস্পিন করার সামর্থ্যের কারণেই নেওয়া হয়েছে তাকে। যদিও মাঝে মধ্যেই ম্যাচে বল করেন তিনি। নাঈম শেখ অবশ্য অনেক দিন থেকেই নির্বাচকদের রাডারে ছিলেন। বাংলাদেশ এ দলের হয়ে আফগানিস্তান এ দলের বিপক্ষে ভালোই খেলেছিলেন। করেছিলেন দারুণ একটি সেঞ্চুরিও।

Comments

The Daily Star  | English

PM’s India Visit: Dhaka eyes fresh loans from Delhi

India may offer Bangladesh fresh loans under a new framework, as implementation of the projects under the existing loan programme is proving difficult due to some strict loan conditions.

8h ago