বৃষ্টি নামার আগে বল হাতে ঝলক মাহমুদউল্লাহর

মিরপুরে জাতীয় লিগের শুরুর দিন আকর্ষণের কেন্দ্রে ছিলেন তামিম ইকবাল। ক্রিকেট থেকে সাময়িক বিরতির পর তার ফেরাটা হয়নি সুখকর। তামিমদের কাবু করে বল হাতে ঝলক দেখিয়েছেন ঢাকা মেট্রোর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে দিনের খেলা বড় একটা অংশ ভাসিয়ে নিয়েছে বৃষ্টি।
Mahmudullah
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

মিরপুরে জাতীয় লিগের শুরুর দিন আকর্ষণের কেন্দ্রে ছিলেন তামিম ইকবাল। ক্রিকেট থেকে সাময়িক বিরতির পর তার ফেরাটা হয়নি সুখকর। তামিমদের কাবু করে বল হাতে ঝলক দেখিয়েছেন ঢাকা মেট্রোর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে দিনের খেলার বড় একটা অংশ ভাসিয়ে নিয়েছে বৃষ্টি।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে প্রথম ইনিংসে চট্টগ্রাম ৫১ ওভারে ৩ উইকেটে ১৪৭ তোলার পর নামে বৃষ্টি। এরপর আর দিনের খেলা চালানো সম্ভব হয়নি। আগেভাগেই দিন শেষ করেন আম্পায়াররা। ঢাকা মেট্রোর হয়ে সবকটি উইকেটই নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ।

সকালে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন চট্টগ্রাম বিভাগের অধিনায়ক মুমিনুল হক। মেঘলা আকাশে তরুণ সাদিকুর রহমানকে নিয়ে ব্যাট করতে নামেন তামিম। পরিবেশ ছিল পেস বান্ধব। পেসার শহিদুল ইসলাম বাউন্স আদায় করছিলেন, দুই দিকেই পাচ্ছিলেন মুভমেন্ট। তাকে খেলতে শুরু থেকেই বেশ ধুঁকতে দেখা গেল তামিমকে। তবে আরেক প্রান্তে অভিষিক্ত পেসার মেহরাব হোসেন জোশি ছিলেন সাদামাটা। আলগা বল করেছেন প্রচুর। তবে তার ফায়দাও তুলতে পারেননি তামিমরা। থিতু হতে বেশ কিছুটা সময় নেন তামিম। সঙ্গী সাদিকুর অবশ্য তার আগেই নিজেকে মানিয়ে নিচ্ছিলেন, পাচ্ছিলেন স্বচ্ছন্দ। ৬৯ বলে ফিফটি করেই অবশ্য দৌঁড় থামান তিনি। মাহমুদউল্লাহকে বেরিয়ে এসে মারতে গিয়ে স্টাম্পিং হয়ে ফেরত যান ৫১ রান করে।

৮৩ বলে ২৩ রান নিয়ে লাঞ্চ থেকে ফিরে তামিমও টেকেননি বেশিক্ষণ। তার সংগ্রামও শেষ হয় মাহমুদউল্লাহর বলে। মাহমুদউল্লাহর শট বলে পুল করতে গিয়েছিলেন। টাইমিং গড়বড় করে বল তুলে দেন আকাশে। মাহমুদউল্লাহ নিজেই নিয়েছেন সহজ ক্যাচ।

চারে নেমে মুমিনুল দুই চারে শুরুটা পেয়েছিলেন ভালো। কিন্তু ভালো শুরু শেষ হয়েছে বাজে শটে। টপ এজ হয়ে তার ক্যাচ যায় গালিতে।

এরপর আর কোনো উইকেট পড়েনি। তবে খেলাও হয়নি খুব একটা। তিনে নামা পিনাক ঘোষ তাসামুল হককে নিয়ে জুটি জমিয়ে তুলেছিলেন। তাদের থামায় বৃষ্টি। চতুর্থ উইকেটে ৩৪ রানের জুটি গড়ে অবিচ্ছিন্ন আছেন তারা। ৭৮ বলে পাঁচ চারে ৩০ রানে অপরাজিত আছেন পিনাক। ৪২ বলে ১৭ রানে ব্যাট করছেন তাসামুল। সবচেয়ে বেশি ১৮ ওভার বল করে ৪০ রানে ৩ উইকেট নেন মাহমুদউল্লাহ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

চট্টগ্রাম বিভাগ প্রথম ইনিংস: ৫১ ওভারে ১৪৭/৩ (তামিম ৩০ সাদিকুর ৫১, পিনাক ৩০*, মুমিনুল ১১, তাসামুল ১৭*; শহিদুল ০/৩৭, মেহরাব ০/২১, সৈকত ০/১৮, মাহমুদউল্লাহ ৩/৪০, আরাফাত ০/২৫)।

রাজশাহী, খুলনায় বৃষ্টি ভাসিয়ে নিল প্রথম দিন

রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল সিলেট ও বরিশাল বিভাগ। কিন্তু বৃষ্টির কারণে মাঠ ভেজা থাকায় ওই ভেন্যুতে টসই হতে পারেনি। একই অবস্থায় খুলনায়। সেখানে প্রথম স্তরের ম্যাচে স্বাগতিক খুলনার প্রতিপক্ষ ছিল রংপুর বিভাগ। কিন্তু বৃষ্টি টস হতে দেয়নি সে ম্যাচেও।

Comments

The Daily Star  | English

Secondary schools, colleges closed until further notice

At least six people were killed in three districts, including the capital, in clashes between Chhatra League and quota reform protesters today.

35m ago