সমালোচকদের গুলি করলেন ট্রাম্প!

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকদের একটি সম্মেলন হয়েছিলো ট্রাম্পের মিয়ামি অবকাশ কেন্দ্রে। সেই সম্মেলনে দেখানো হয় একটি ভিডিওচিত্র। সেখানে দেখা যায়, সমালোচক ও গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর হামলা করছেন ভুয়া ট্রাম্প।
Fake Trump shooting
ভিডিওচিত্রে ভুয়া ট্রাম্প। ছবি: সংগৃহীত

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকদের একটি সম্মেলন হয়েছিলো ট্রাম্পের মিয়ামি অবকাশ কেন্দ্রে। সেই সম্মেলনে দেখানো হয় একটি ভিডিওচিত্র। সেখানে দেখা যায়, সমালোচক ও গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর হামলা করছেন ভুয়া ট্রাম্প।

দ্য নিউইয়র্ক টাইমসের হাতে আসা ভিডিওচিত্রটির ফুটেজে দেখা যায়- ভুয়া ট্রাম্প সমালোচক ও গণমাধ্যমকর্মীদের ছুরি দিয়ে আঘাত করছেন। এমনকী, তিনি তাদেরকে গুলি করে হত্যাও করছেন।

নিউইয়র্ক টাইমসের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে আজ (১৪ অক্টোবর) বলা হয়, ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে- ট্রাম্পের ন্যাশনাল ডোরাল মিয়ামিতে তিনদিনের সম্মেলন করেছিলো ‘আমেরিকার প্রায়োরিটি’ নামে ট্রাম্প সমর্থকদের একটি দল। সেখানে তারা ট্রাম্পের ২০২০ সালের পুনর্নির্বাচনের লোগো তুলে ধরে।

সেখানে প্রদর্শিত একটি ভিডিওতে দেখা যায়, এডিট করে অন্য একজন মানুষের ওপর ট্রাম্পের মাথা বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেই ভুয়া ট্রাম্প একদল মানুষকে গুলি করছেন। যাদেরকে গুলি করা হচ্ছে তাদের চেহারায় ট্রাম্প সমালোচকদের চেহারা বসানো হয়েছে। আর বলা হয়েছে- তারা হচ্ছেন ‘ভুয়া সংবাদের আখড়া’।

সম্মেলনের আয়োজক অ্যালেক্স ফিলিপস এক বার্তায় নিউইয়র্ক টাইমসকে গতকাল (১৩ অক্টোবর)- বলেন, ভিডিওটি সম্মেলনে দেখানো হয়েছিলো “মজা করার” অংশ হিসেবে।

তবে এমন সহিংস ভিডিও নিয়ে নতুন করে সমালোচনার মুখে পড়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। হোয়াইট হাউজ সংবাদদাতাদের সংগঠন এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। সংগঠনটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, “সব আমেরিকানদের উচিত সাংবাদিকদের ওপর এমন সহিংস হামলার ভিডিওচিত্রের সমালোচনা করা।”

সংগঠনের সভাপতি জোনাথন কার্ল বলেন, “আমরা আগেও বলেছি রাষ্ট্রপতির উত্তেজনাপূর্ণ বক্তব্যগুলো সমাজে সহিংসতা উস্কে দেয়। এখন আমরা রাষ্ট্রপতি ও তার সহযোগীদের বলতে চাই এই ভিডিওচিত্রটির নিন্দা করা হোক। এবং তাদের তরফ থেকে বলা হোক যে আমাদের সমাজে সহিংসতার কোনো স্থান নেই।”

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka traffic still light as offices, banks, courts reopen

After five days of Eid and Pahela Baishakh vacation, offices, courts, banks, and stock markets opened today

52m ago