খেলা

দেশের ফুটবলে পরিবর্তন আনতে ভারতকে হারাতে চান জামাল

গত কয়েক বছরে ফুটবলে বেশ উন্নতি করেছে ভারত। শক্তি, সামর্থ্য ও র‍্যাংকিং সব দিক থেকেই বাংলাদেশের চেয়ে ঢের এগিয়ে তারা। কিন্তু প্রতিপক্ষের শক্তি নিয়ে ভাবছে না বাংলাদেশ। এমনকি ভাবনায় নেই প্রতিপক্ষের মাঠে খেলার চাপ নিয়েও। ম্যাচের প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করে ভারতকে গুঁড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনাই করছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া।

গত কয়েক বছরে ফুটবলে বেশ উন্নতি করেছে ভারত। শক্তি, সামর্থ্য ও র‍্যাংকিং সব দিক থেকেই বাংলাদেশের চেয়ে ঢের এগিয়ে তারা। কিন্তু প্রতিপক্ষের শক্তি নিয়ে ভাবছে না বাংলাদেশ। এমনকি ভাবনায় নেই প্রতিপক্ষের মাঠে খেলার চাপ নিয়েও। ম্যাচের প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করে ভারতকে হারানোর পরিকল্পনাই করছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া। দেশের ফুটবলের সুদিন ফিরিয়ে আনতে এমনতা চান অধিনায়ক।

কিন্তু মুখোমুখি লড়াইয়ে ভারতের বিপক্ষে বেশ পিছিয়ে বাংলাদেশ। ২৫টি লড়াইয়ের ১২টিতেই হেরেছে তারা। জয় মাত্র ৩টিতে। এমন পরিসংখ্যান মাথায় রেখেও দেশের ফুটবলের উন্নতির জন্য এ ম্যাচে জয় চান বাংলাদেশ অধিনায়ক, 'যদি আমরা কালকে জিতে যাই, তাহলে বাংলাদেশের ফুটবলে কিছু পরিবর্তন আসবে। বাংলাদেশের ফুটবলকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য এটা আমাদের জন্য দারুণ সুযোগ।'

২০২২ বিশ্বকাপ ও এশিয়াকাপ বাছাই পর্বে এখনও জয়হীন বাংলাদেশ। দুটি ম্যাচেই হারের স্বাদ পেয়েছে জামালরা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে ০-১ গোলে হারের পর ঘরের মাঠে কাতারের বিপক্ষে হারে ০-২ গোলের ব্যবধানে। তবে জয়ের খরাটা ভারতের বিপক্ষে কাটাতে চান বাংলাদেশ অধিনায়ক। ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে তাই ভয়ডরহীন জামাল, 'আমি আগামীকাল ভারতকে গুঁড়িয়ে দিতে চাই।'

কিন্তু ম্যাচটা অনুষ্ঠিত হবে যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে। শেষ বার ১৯৮৫ সালে সে মাঠে খেলেছিল বাংলাদেশ। সেটাও ছিল বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচ। যে ম্যাচে ১-২ গোলের ব্যবধানে হেরেছিল বাংলাদেশ। তখন বাংলাদেশ সমান তালেই লড়ত ভারতের সঙ্গে। ৩৪ বছরে প্রেক্ষাপট অনেক বদলেছে। অনেক এগিয়ে গিয়েছে ভারত। তবে সাম্প্রতিক সময়ে জেমি ডে'র অধীনে দারুণ খেলছে বাংলাদেশও। এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতারের কাছে হারলেও প্রশংসা কুড়িয়েছে জামালদের খেলার ধরণ।

আর প্রসঙ্গ যদি আসে চাপের তাহলে তা ভারতেরই থাকবে বলে মনে করেন জামাল, 'আমাদের চাপ নেওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। ভারতই চাপে থাকবে কারণ তারা ঘরের মাঠে খেলবে। আমি আমার খেলোয়াড়দের বলব, মাঠে গিয়ে খেলাটা উপভোগ করো। কারণ এতো দর্শকের সামনে আমরা খুব কমই খেলার সুযোগ পাই। প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করো এবং ভারতের মতো কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছ থেকে তিন পয়েন্ট ছিনিয়ে নাও।'

আর ব্যক্তিগতভাবে নিজেও গ্যালারী ভর্তি দর্শকের সামনে ভারতের বিপক্ষে খেলতে মুখিয়ে রয়েছেন জামাল, 'আমার মনে দুই দলের খেলোয়াড়রাই ম্যাচটি খেলার জন্য মুখিয়ে রয়েছে। এটা একটি কঠিন ম্যাচ হবে কারণ ভারতের বিপক্ষে আমাদের একটা ইতিহাস রয়েছে। তাই সকলেই আগামীকালের ম্যাচের জন্য রোমাঞ্চিত। আমিও ভারতের দর্শকদের সামনে খেলার জন্য তাকিয়ে রয়েছি।'

Comments

The Daily Star  | English

MV Abdullah passing through high-risk piracy area

Precautionary safety measures in place, Italian Navy frigate escorting it

1h ago