বাংলাদেশ এখানে হারতে আসেনি: ভারতীয় কোচ

ভারতের কোচ ইগর স্টিমাচ ও অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী এলেন ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে। শুরুতেই অধিনায়ককে প্রশ্ন করা হয়, 'এমন একটা দলের বিপক্ষে খেলতে যাচ্ছেন যারা আপনাদের চেয়ে র‍্যাংকিংয়ে অনেক নিচে অবস্থান করছে। আপনার কাছে হ্যাটট্রিক আশা করতে পারি?'
india coach
ছবি: সংগৃহীত

ভারতের কোচ ইগর স্টিমাচ ও অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী এলেন ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে। শুরুতেই অধিনায়ককে প্রশ্ন করা হয়, 'এমন একটা দলের  বিপক্ষে খেলতে যাচ্ছেন যারা আপনাদের চেয়ে র‍্যাংকিংয়ে অনেক নিচে অবস্থান করছে। আপনার কাছে হ্যাটট্রিক আশা করতে পারি?'

প্রশ্নের ধরণে এটাই বোঝা যায় যে, বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটা জিততে যাচ্ছেন, এমনটা ভেবেই নিয়েছেন ভারতীয় সাংবাদিকরা। সংবাদ সম্মেলনে বারবারই কোচ ও অধিনায়ককে প্রশ্ন করছিলেন, ব্যবধানটা কত হতে পারে?

অধিনায়ক সুনীলের মূল প্রত্যাশা ম্যাচ জয়। সঙ্গে নিজের হ্যাট্রিক হলে মন্দ হয় না। কিন্তু এমন প্রশ্নে বিব্রত বোধ করেছেন ভারতের ক্রোয়েশিয়ান কোচ ইগর স্টিমাচ। বাংলাদেশের উপর শ্রদ্ধা রেখেই কথা বলতে বলেছেন তিনি।

প্রতিপক্ষকে হেয় করলে যে ফলাফল ভালো হয় না তা জানিয়ে ইগর বলেছেন, 'আমি অন্য সবার মতো বাংলাদেশ দলকে অবমূল্যায়ন করছি না। এটা করা ভালোও না। আমার অনেক অভিজ্ঞতা আছে, যারা অন্যকে শ্রদ্ধা করে না তাদের ফলাফল ভালো হয় না। হারা ম্যাচেও বাংলাদেশ দল নিজেদের প্রমাণ করেছে, বিশেষ করে কাতারের বিপক্ষে। তারা যে সকল সুযোগ পেয়েছিল তা কাজে লাগাতে পারলে ম্যাচটি জিততেও পারত।'

'তাদেরও (বাংলাদেশ দল) প্রত্যাশা রয়েছে, স্বপ্ন আছে। তারা এখানে হারতে আসেনি। তারা এখানে জিততে এসেছে। এটা নিয়ে খোঁচাখুঁচি করবেন না। তারা খেলাটিতে উন্নতি করেছে। একজন নতুন কোচের অধীনে ১৪/১৫ মাস ধরে অনুশীলন করছে। বর্তমানে তারা একটি ভালো গোছানো দল। অনেক সুশৃঙ্খল দল। অনূর্ধ্ব-২৩ এএফসি টুর্নামেন্টে সাফল্যও পেয়েছে। তাদেরও আমাদের মতো অনেক মেধাবী খেলোয়াড় রয়েছে। এ ম্যাচের প্রতি আবেগ রয়েছে।' - যোগ করে আরও বলেছেন ইগর।

২০২২ বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। ম্যাচটি ভারতের যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে। একে স্বাগতিক দেশ অন্যদিকে শক্তি, সামর্থ্য ও র‍্যাংকিংয়েও এগিয়ে। তাই ম্যাচের পরিষ্কার ফেবারিট ভারতই। কিন্তু তাই বলে ছেড়ে কথা বলবে না লাল সবুজের দেশ। সংবাদ সম্মেলনে এমনটা স্পষ্ট করেই বলেছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক।

কিন্তু এতো কিছু ভাবতে রাজি নন ভারতীয় সাংবাদিকরা। সহজ প্রতিপক্ষ ভাবনায় রেখে চাইছেন সহজ জয়। তবে সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে বাংলাদেশ শ্রদ্ধা প্রাপ্য বলেই মনে করেন ইগর। এ সকল বিষয়ে এগিয়ে থাকায় প্রতিপক্ষকে ছোট করলে নিজেদের কাজটা কঠিন হয়ে যাবে বলে মনে করেন এ কোচ, 'শান্ত থাকুন এবং আমাদের সমর্থন দিন। কিন্তু এটা আমাদের জন্য প্রতিকূল বানিয়ে দিবেন না। এটা কঠিন করে দিবেন না। বাংলাদেশের উপর শ্রদ্ধা রেখেই ম্যাচটা খেলি।'

তবে পরিসংখ্যান ভারতের পক্ষেই। ইতিহাস বলছে দুই দলের মুখোমুখি ২৫টি লড়াইয়ে মাত্র ৩টি ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে ভারতের জয় ১২টি ম্যাচে। তার উপর গত কয়েক বছরে ঈর্ষনীয় উন্নতি করেছে ভারত। তাই প্রতিবেশী দেশের সমর্থকদের প্রত্যাশাও অমূলক নয়।

Comments

The Daily Star  | English

Trees are Dhaka’s saviours

Things seem dire as people brace for the imminent fight against heat waves and air pollution.

5h ago