বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নতিতে খুশি ফিফা সভাপতি

এক দিনের সংক্ষিপ্ত সফরে বাংলাদেশে আসার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেছেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রধান সেখানে জানিয়েছেন, বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নতিতে তিনি অনেক খুশি।
infantino and pm
(বাঁ থেকে) ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাফুফে সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন।

এক দিনের সংক্ষিপ্ত সফরে বাংলাদেশে আসার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেছেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রধান সেখানে জানিয়েছেন, বাংলাদেশের ফুটবলের উন্নতিতে তিনি অনেক খুশি।

বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানিয়েছে, শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতকালে ইনফান্তিনো বলেছেন, বাংলাদেশের ফুটবলের যে উন্নতি তার চোখে পড়েছে, তাতে তিনি যারপরনাই আনন্দিত। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে (বাফুফে) ফিফার সঙ্গে অব্যাহতভাবে যোগাযোগ রাখার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। ইনফান্তিনো যোগ করেছেন, বাংলাদেশের ফুটবলের প্রসারে ফিফার সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) ভোরে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে ইনফান্তিনোকে বহনকারী বিমান। বৈরি আবহাওয়ার কারণে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে প্রায় চার ঘণ্টা দেরিতে বাংলাদেশে পৌঁছান তিনি। প্রথমবার বাংলাদেশে আসায় বিমানবন্দরে উষ্ণ অভ্যর্থনা দেওয়া হয় তাকে। সেখানে সাংবাদিকদের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি। এরপর নির্ধারিত সফর সূচি অনুসারে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন ফিফা প্রধান। সেখানে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিনও উপস্থিত ছিলেন।

সেসময় প্রধানমন্ত্রীও জানিয়েছেন, সরকার সারা দেশে ফুটবলসহ অন্যান্য খেলার উন্নয়নের জন্য উপজেলা পর্যায়ে ৪৯২টি মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করছে। শিশুদের ফুটবলসহ অন্যান্য খেলাধুলার প্রতি আগ্রহী করে তুলতে তাদের বিভিন্ন উদ্যোগের কথাও তুলে ধরেন তিনি।

বাফুফের আমন্ত্রণে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল নিয়ে বাংলাদেশে ১৬ ঘণ্টার সংক্ষিপ্ত সফর শেষে বৃহস্পতিবারই বিকাল ৫টায় লাওসের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যাবেন সুইস-ইতালিয়ান নাগরিক ইনফান্তিনো। সেপ ব্লাটার ও জোয়াও হাভেলাঞ্চের পর ফিফার তৃতীয় সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশ সফরে এসেছেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

3h ago