গুলশানে সংবাদ সম্মেলনে করবেন সাকিবরা

মিরপুরের বিসিবি কার্যালয়ে ধর্মঘটের ডাক দেওয়া ক্রিকেটারদের অপেক্ষায় আছেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। তার সঙ্গে অপেক্ষায় বিসিবি পরিচালকরাও। দ্রুত সংকট সমাধানে তারা কথা বলতে চান সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহদের সঙ্গে। তবে ক্রিকেটাররা বিসিবি কার্যালয়ে না গিয়ে জমায়েত হয়েছেন গুলশানে। সন্ধ্যা ৬টা বা তার কিছু পরে সেখানকার একটি হোটেলে তারা সংবাদ সম্মেলনে করবেন।

মিরপুরের বিসিবি কার্যালয়ে ধর্মঘটের ডাক দেওয়া ক্রিকেটারদের অপেক্ষায় আছেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। তার সঙ্গে অপেক্ষায় বিসিবি পরিচালকরাও। দ্রুত সংকট সমাধানে তারা কথা বলতে চান সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহদের সঙ্গে। তবে ক্রিকেটাররা বিসিবি কার্যালয়ে না গিয়ে জমায়েত হয়েছেন গুলশানে। সন্ধ্যা ৬টা বা তার কিছু পরে সেখানকার একটি হোটেলে তারা সংবাদ সম্মেলনে করবেন।

এর আগে ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে বোর্ডের আগ্রহের কথা আজ বুধবার (২৩ অক্টোবর) সকালেই জানান বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী। বোর্ডের আগ্রহের বিষয়টি দুপুরে আরও একবার জানিয়েছেন বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

এদিকে দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এসে বিসিবি কার্যালয়ে ক্রিকেটারদের জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তার সঙ্গী হয়েছিলেন ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) সভাপতি ও বোর্ড পরিচালক নাঈমুর রহমান দুর্জয়। বিসিবি এখন আশায় আছে, ক্রিকেটাররা দ্রুতই আলোচনায় বসবেন, সংকট সমাধানে কথা বলবেন।

উল্লেখ্য, গেল সোমবার পারিশ্রমিক বাড়ানো, ক্রিকেটারদের প্রতি বোর্ডের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টানোসহ ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দেন দেশের তারকা ক্রিকেটাররা। দাবি না মানা পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দেন তারা।

মিরপুর একাডেমি মাঠে ৫০-৬০ জনের মতো ক্রিকেটার জড়ো হয়ে নিজেদের দাবি জানান। দাবিগুলোর মধ্যে আরও ছিল- স্থানীয় কোচদের প্রাধান্য  দেওয়া, জাতীয় লিগের ম্যাচ ফি ন্যূনতম এক লাখ করা, ভ্রমণভাতা বাড়ানো, প্রতি বিভাগে অনুশীলনের সুযোগ বাড়ানো, মানসম্মত বল দিয়ে স্থানীয় খেলা চালানো, প্রথম ও দ্বিতীয় বিভাগ লিগের দুর্নীতি বন্ধ করা ইত্যাদি।

খেলোয়াড়দের ধর্মঘটের ঘোষণার প্রেক্ষিতে গতকাল দুপুরে বিসিবি কার্যালয়ে কয়েকজন পরিচালক নিয়ে অনির্ধারিত সভায় বসেন বোর্ড প্রধান নাজমুল। এরপর সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটারদের প্রতি নিজের অনেক ক্ষোভ ও অভিযোগের কথা জানান তিনি।

Comments

The Daily Star  | English