দুঃসময়ে ‘জান দিয়ে লড়ার’ প্রত্যয় মাহমুদউল্লাহর

আকস্মিক ধাক্কায় টালমাটাল বাংলাদেশের ক্রিকেট। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নিষিদ্ধ হওয়ার খবর হজম করার ফুরসত পাওয়ার আগেই ভারতের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছে দল। দেশ ছাড়ার আগে সাকিবের জায়গায় নতুন টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব পাওয়া মাহমুদউল্লাহ জানালেন, এই ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে তারা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। দেশের জার্সি গায়ে চাপিয়ে নিজেদের সেরাটা দিতে চান তারা। সেই সঙ্গে জানিয়ে গেছেন সাকিবের প্রতি নিখাদ ভালোবাসার কথাও।
mahmudullah
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আকস্মিক ধাক্কায় টালমাটাল বাংলাদেশের ক্রিকেট। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নিষিদ্ধ হওয়ার খবর হজম করার ফুরসত পাওয়ার আগেই ভারতের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছে দল। দেশ ছাড়ার আগে সাকিবের জায়গায় নতুন টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব পাওয়া মাহমুদউল্লাহ জানালেন, এই ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে তারা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। দেশের জার্সি গায়ে চাপিয়ে নিজেদের সেরাটা দিতে চান তারা। সেই সঙ্গে জানিয়ে গেছেন সাকিবের প্রতি নিখাদ ভালোবাসার কথাও।

ভারতের মাটিতে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে শুরু হবে আগামী ৩ নভেম্বর। সব ঠিক থাকলে বুধবার (৩০ অক্টোবর) সাকিবের নেতৃত্বেই দিল্লির বিমানে চড়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু জুয়াড়ির কাছ থেকে একাধিক প্রস্তাব পেয়েও তা গোপন করায় সাজা পেয়ে সাকিব এখন এক বছরের জন্য ক্রিকেটের বাইরে।

হুট করে আসা এই ঝড় সামলাতে টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মাহমুদউল্লাহকে। টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব করবেন মুমিনুল হক।

টি-টোয়েন্টি দল নিয়ে ভারত যাওয়ার আগে নতুন পাওয়া দায়িত্ব অন্য যেকোনো সময়ের একটু ভিন্ন মাহমুদউল্লাহর কাছে, ‘প্রথমত, আমাকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, আমি চেষ্টা করব সর্বোচ্চ দিয়ে তা পালন করার। দেশের জার্সি গায়ে দিয়ে যখন নামব, চেষ্টা করব দল হিসেবে আমরা যেন সেরাটা দিতে পারি।’

ভারত এমনিতেই সেরা দলগুলোর একটি, ঘরের মাঠে তো তারা প্রায় অপ্রতিরোধ্য। সেই ভারতের সঙ্গে এমন বিপর্যস্ত দল নিয়েও আশায় বুক বাঁধছেন মাহমুদউল্লাহ, ‘হ্যাঁ, তারা অনেক ভালো দল। তবে দল হিসেবে যদি আমরা সেরাটা দিতে পারি, ছোট ছোট সুযোগ যদি কাজে লাগাতে পারি, তাহলে সম্ভব (ভালো কিছু করা)।’

ঠিক একদিন বয়ে গেছে টর্নেডো। যাতে ছিটকে গেছেন সাকিব। দলের অধিনায়ক ও সেরা খেলোয়াড়ের এভাবে ছিটকে যাওয়ার পরিস্থিতি সামলানোর পাশাপাশি মাহমুদউল্লাহ জানিয়ে গেলেন সাকিবের প্রতি নিখাদ সমর্থনের কথা, ‘সবাই জানি আমাদের দলের জন্য, দেশের জন্য কত বড় আঘাত। ও কত বড় খেলোয়াড় সবাই জানি। হয়তো সে একটা ভুল করেছে, কিন্তু অপরাধ করেনি। আমাদের সকলের সমর্থন তার সঙ্গে আছে। আমরা সাকিবকে ভালোবাসতাম। আশা করি, ভালোবেসে যাব।’

আপাতত কিছুই বদলানো যাবে না। কিন্তু যা করা যাবে সেদিকেই নজর মাহমুদউল্লাহর, ‘এটা তো আমাদের নিয়ন্ত্রণে নাই। আমার কাজ হচ্ছে খেলা এবং দেশের জন্য জান দিয়ে লড়া।’

Comments